দেশনতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

আবারো একবার চীনের বিরুদ্ধে তথ্য গোপন করার বিস্ফোরক অভিযোগ তুললো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র…

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে COVID-19 , আর এবার এই ভাইরাসের সংক্রমনের জেরে এবার চীন, ইতালি কেউ পিছনে ফেলে এগিয়ে গেল আমেরিকা। গত 24 ঘন্টায় আমেরিকাতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে সেখানকার 233 জন মানুষ। আর এই ভাইরাসের দরুন আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে 82 হাজারেরও বেশি মানুষকে। সেই দেশে যেভাবে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তাতে ট্রাম্পের ভাইরাস মোকাবেলা সিদ্ধান্ত নিয়ে উঠতে শুরু করেছে একাধিক প্রশ্ন আমেরিকাবাসীর মনে।

তবে আবারো একবার চীনের বিরুদ্ধে আমেরিকা এই ভাইরাস নিয়ে তথ্য গোপন করার অভিযোগ তুলল সরাসরি। এই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দাবি বিশ্বের কাছ থেকে বহু প্রয়োজনীয় তথ্য লুকিয়েছে চীন। আর এই বিষয়ে মার্কিন সচিব মাইক পম্পেও দাবি, মরণ ভাইরাস করোনা নিয়ে চীনের অবস্থান তা স্পষ্ট নয় এর পাশাপাশি তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন এই ভাইরাস মানব সভ্যতার প্রতি বড়ো ত্রাস হয়ে উঠেছে।

আর এরকম এক পরিস্থিতিতে ভুয়ো তথ্য ছড়িয়ে চীন বিশ্বের কাছ থেকে বহু প্রয়োজনীয় তথ্য লুকিয়ে যাচ্ছে। শুধু তাই নয় এর পাশাপাশি তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন যে চীন যে তথ্যগুলি লুকিয়ে যাচ্ছে সেগুলি বিশ্বের কাছে করোনা রোধে অনেক খানি উপকার হবে।তবে এবার পম্পে কিন্তু শুধু চীনের দিকেই নয় চীন ছাড়া রাশিয়া- ইরানের দিকেও তথ্য গোপনের অভিযোগ তুলেছেন। তিনি অভিযোগ করেন এনিয়ে চীনের মতো তথ্য গোপন করেছে এই দুটি দেশও।

তবে উল্টো দিকে চীনের অভিযোগ মার্কিনীরা চীনে গিয়ে এই ভাইরাস ছড়িয়েছে বলে যদিও সেই কথা মানতে নারাজ রয়েছে আমেরিকা। এর পাশাপাশি মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি এই মরণ ভাইরাস COVID-19 কে চিনা ভাইরাস নামে উল্লেখ করেছেন। আর বিশ্বজুড়ে এরকম এক মরন ভাইরাসের দরুন বিশ্বের যা ভয়াবহ পরিস্থিতি হয়েছে তারজন্য বেজিং শহরকে দায়ী করেছেন তিনি।

এই দিন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি চীনের দিকে অভিযোগ তেগে বলেন প্রথমে এই মরন ভাইরাসের বিষয়টি নিয়ে চীন ধামাচাপা দিয়ে রেখেছিল যার ফলে পৃথিবীতে দেখা দিয়েছে একাধিক মৃত্যু-মিছিল, কিন্তু চীন যদি প্রথম থেকেই এই বিষয়টি নিয়ে বিশ্বের কাছে জানিয়ে দিত তাহলে পৃথিবীতে আজ এত মৃত্যু মিছিল হতো না।তাই আজকে গোটা বিশ্বে এই ভাইরাস যে মহামারি আকার ধারণ করেছে তারজন্য প্রকৃত অর্থে দায়ী হল চীন, কারণ চীনের তথ্য গোপন করার দরুনই আজ এই ভাইরাস গোটা বিশ্বে মহামারীর আকার ধারণ করেছে।

Related Articles

Back to top button