নতুন খবররাজনৈতিক

তথ্য বিকৃতির অভিযোগে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহকে নোটিশ পাঠালো তৃণমূল কংগ্রেস।

লোকসভা নির্বাচনের আগে ফের একবার তোলপাড় হয়ে গেলো গোটা রাজনৈতিক মহল। যত লোকসভা নির্বাচনের দিন এগিয়ে আসছে তত রাজনৈতিক পারদ চড়ছে। এক দল অন্য দলের বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ আনছে। এবার লড়াইটা অমিত শাহ বনাম তৃণমূল। অমিত শাহ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা ছবি নিয়ে মন্তব্য করার জন্য তৃণমূল এর তরফ থেকে অমিত শাহকেকে নোটিশ পাঠিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস । এই নোটিশ পাঠিয়েছেন মহিলা তৃণমূল সভানেত্রী তথা আইনজীবী সেলের নেত্রী চন্দ্রীমা ভট্টাচার্য। এনার মতে অমিত শাহের এমন মন্তব্যের কারনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সন্মানহানী হয়েছে।

মহিলা তৃণমূল সভানেত্রীর দাবি অমিত শাহ তার মন্তব্যের পেছনে সঠিক প্রমাণ দেখান, তা না হলে সবার সামনে করা এই অভিযোগ তুলে নেন। কাঁথিতে বিজেপির সভায় অমিত শাহ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা ছবির কত দাম, এই প্রশ্ন তুলে কটাক্ষ করেন। এরপর তিনি বলেন, চিটফান্ডের টাকায় যারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা ছবি কিনেছেন তাদের মুখ্যমন্ত্রী কিছু করছেন না। অপরদিকে তৃণমূলের অভিযোগ, অমিত শাহ বলেছেন, ছবি বিক্রি করে কোটি কোটি টাকা এসেছে তৃণমূলের। এই বিষয়টি নিয়ে তৃণমূলের প্রতিক্রিয়া যানাতে বেশি সময় লাগেনি। সঙ্গে সঙ্গে বিজেপির জাতীয় দফতরে তৃণমূলের তরফ থেকে নোটিশ পাঠানো হয়। চন্দ্রীমা ভট্টাচার্য এই নোটিশটি পাঠিয়েছেন।

এনার অভিযোগ, অমিত শাহ বলেছেন, নামী দামী শিল্পীদের ছবি যখন হাজার টাকায় বিক্রি হয় তখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি কোটি কোটি টাকায় বিক্রি হয় কিভাবে। সেই টাকা চিটফান্ড থেকে এসেছে বলে দাবি করেন। এদিকে চন্দ্রীমা ভট্টাচার্যের দাবি অমিত শাহের এই বক্তব্যে মানহানি কর। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের আয় নিয়ে আয়কর দপ্তর এবং নির্বাচন কমিশনে হলফনামা জমা দিয়েছেন। সুতরাং, প্রকাশ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এই রকম অভিযোগ করা উচিত হয়নি তাঁর। তাঁর দাবির যথেষ্ট প্রমাণ দেখাতে হবে, না হলে এই অভিযোগ তাঁকে তুলে নিতে হবে।

Related Articles

Back to top button