পাল্টে যাচ্ছে বঙ্গবিজেপির সভাপতি! দিলীপ ঘোষের বিকল্প হিসেবে উঠে আসছে ৩ নেতার নাম

2014 সালে প্রথম প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রীর সিংহাসনে বসেন। তারপরই রাজ্য বিজেপির সভাপতির পদে আসেন দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষের সভাপতি হওয়ার পর থেকেই দলের অন্দরে তাঁকে নিয়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এখনো পর্যন্ত তিনি এই পদে অধিষ্ঠিত আছেন। দলের কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ এবং দিলীপ ঘোষের সভাপতি পদের মেয়াদ শেষের জন্য এবার তাঁকে সরাতে চাইছেন বিজেপি নেতৃত্বরা।

নিয়ম অনুযায়ী এক ব্যক্তি একই পদে বেশিদিন থাকতে পারেন না। একটানা ৬ বছরের বেশি একজন ব্যক্তিকে একই পদে রাখা হয় না। ২০২১ সালের নভেম্বরে মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে দিলীপ ঘোষের। সূত্রের খবর, দলের অন্দরেই আবার দিলীপ ঘোষকে নিয়ে ক্ষোভের জন্ম হয়েছে। দলের শীর্ষ নেতারা মনে করছেন যে এই নেতার বেফাঁস মন্তব্যের জেরেই জনসাধারণের মনে বিজেপি সম্পর্কে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার জন্য এই পদ থেকে দিলীপ ঘোষকে সরানো হচ্ছে।

দিলীপ ঘোষের এই পদে অর্থাৎ রাজ্যের সভাপতির পদে আসার জন্য বেশ কয়েকটি নেতার নাম উঠে এসেছে যেমন বোলপুরের বিজেপি প্রার্থী অনির্বাণ গাঙ্গুলি, ইংলিশবাজারের বিজেপি বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী এবং রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী। এই তালিকায় এগিয়ে রয়েছেন অনির্বাণ গাঙ্গুলী।

তিনি একজন শিক্ষিত মানুষ এবং ঠাণ্ডা মাথার অধিকারী। তাই শীর্ষ নেতৃত্বরা তাঁর উপর আস্থা রাখছেন যে তিনি শান্ত ভাবে সবাইকে নিয়ে কাজ করতে পারবেন। অপরদিকে দিলীপ ঘোষকে কেন্দ্রের কোনো একটি পদে রাখা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।