আম্বানিকে টপকে ১ নাম্বারে উঠে এল টাটা গ্রুপ

টাটা গ্রুপ (Tata Group) এবং রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ (Reliance Industries)- দেশের দুই বৃহত ব্যবসায়িক সংস্থা।  দুজনের মধ্যে কে  শীর্ষ স্থান দখল করবে সেই নিয়ে ঠাণ্ডা লড়াই লেগেই থাকে । কখনও টাটাকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যায় রিলায়েন্স, আবার কখনও রিলায়েন্সকে টপকে শীর্ষ স্থান দখল করে বসে টাটা গ্রুপ৷

সমীক্ষা বলছে, ২০২০ সালের জুলাইয়ে মুকেশ আম্বানির ‘রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ’, দেশের সবথেকে ধনী ব্যবসায়ীর স্থান দখল করে নিয়েছিল। রতন টাটার টাটা গ্রুপ সেই দৌড়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছিল৷ কিন্তু মাত্র ৬ মাসের মধ্যেই নিজের ব্যবসায়িক ক্ষমতার প্রকাশ ঘটিয়ে হৃত সম্মান এবং হারানো জায়গা দুটোই ফিরে ফেলেন রতন টাটা।

দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য লবণ থেকে শুরু করে সফটওয়্যার উৎপাদনকারী সংস্থা টিসিএসের সাহায্যে বাজারে আবারও নিজেদের জায়গা সেরার সেরা হিসেবে ধরে  রাখতে পেরেছে টাটা গ্রুপ। এর জেরেই  তৃতীয় স্থানে চলে গেছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। এবং  দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এইচডিএফসি গ্রুপ ( HDFC group)

BSNL-এর দুর্দান্ত প্ল্যানে বাজিমাত, একবার রিচার্জ করলেই মিলবে এক বছর পর্যন্ত Unlimited পরিষেবা

বর্তমানে টাটা গ্রুপের মার্কেট কেপ অর্থাৎ মোট অর্থ ভাণ্ডারের পরিমাণ ভারতীয় মুদ্রায়  প্রায় ১৭ লক্ষ কোটি টাকা।  দ্বিতীয় স্থানে থাকা HDFC Group-র মোট অর্থ ভাণ্ডারের পরিমাণ প্রায় ১৫.২৫ লক্ষ কোটি টাকা। গত এক বছরে টাটা গ্রুপের পারফরমেন্স ছিল দেখার মত৷  যার কারণেই ৪২ শতাংশ অর্থবৃদ্ধি হয়েছে৷  শুধুমাত্র গত এক মাসেই ১৩ শতাংশ অর্থাৎ ১.৯ লক্ষ কোটি টাকা আর্থিক  বৃদ্ধি হয়েছে টাটা গ্রুপের৷  অন্যদিকে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের আর্থিক পরিমাণ  বেড়েছে ২৭ শতাংশ এবং HDFC Group-এর বেড়েছে মাত্র ১১ শতাংশ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০২০ সালের জুলাই মাসে টাটা গ্রুপের মার্কেট কেপ অর্থাৎ মোট আর্থিক পরিমাণ ছিল  ১১.৩২ লক্ষ কোটি টাকা। কিন্তু তখন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের মার্কেট কেপ ছিল ১৩ লক্ষ কোটি টাকা। তাই তখন রতন টাটাকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থানে ছিলেন মুকেশ আম্বানি। কিন্তু বছর ঘুরল না,মাত্র ৬ মাসের মধ্যেই নিজের  জায়গায় স্বমহিমায় ফিরলেন রতন টাটা৷