যে ষ্টেশনে প্রধানমন্ত্রী বিক্রি করতেন চা, সেই স্টেশনকেই এখন পুনঃ নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে হেরিটেজ লুক

একেই বলে উপরওয়ালার মার! এককালে যে স্টেশনে বসেই বাবার সাথে চা বিক্রি করতেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সেই রেলওয়ে স্টেশন বডনগর আজ পুননির্মাণের উদ্বোধন করলেন আজ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পৈতৃক বাড়ি ছিল মেহসানা জেলার এই কসবাতেই।সেখানেই তার ছোট থেকে বড় হয়ে ওঠা।

বডনগর রেলওয়ে স্টেশন ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী গান্ধীনগর স্টেশন পুননির্মাণের কথা জানিয়েছেন। যেহেতু বডনগর শহরটি ঐতিহ্যবাহী সেই কারণে সেই স্টেশনটিকে হেরিটেজ লুক দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী গান্ধিনগর থেকে বরেথা মেমু ট্রেনেরও উদ্বোধন করবেন।

শোনা যাচ্ছে যে, গান্ধীনগর রেলওয়ে স্টেশন এমন ভাবেই নির্মাণ করা হবে, যেখানে যাত্রীরা পুরোপুরি একটি বিমানবন্দর এর মত সুযোগ সুবিধা পাবেন। এই গান্ধীনগর স্টেশন ভারতের প্রথম রেলওয়ে স্টেশন হতে চলেছে, যেখানে যাত্রীরা এয়ারপোর্টের মতো সুবিধা পাবেন।

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানান, এই প্রথম যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে আমরা এমন ভাবে এই স্টেশনকে পুননির্মাণ করতে চলেছি যেখানে যাত্রীদের কোনও রকম অসুবিধা হবে না, এবং এই গান্ধীনগর স্টেশনে যাত্রীরা যাতে প্রয়োজনীয় সমস্ত সুবিধা উপলব্ধ করতে পারেন সেই ব্যবস্থা আমরা করছি। ভারতের মধ্যে একদম নতুন একটি স্টেশন তৈরি করা হচ্ছে।