নতুন খবরবিশেষরাজ্যলাইফ স্টাইল

আরো একবার ছুটির ঘোষণা করল রাজ্য! কিন্তু কেন করা হল এই ঘোষণা? জবাব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের..

দুর্গাপুজোয় রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের লম্বা ছুটির পর এবার আরো ছুটির ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী।পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছুটির ঘোষণা অনেক আগেই করে দিয়েছিলেন। মুখ্যমন্ত্রী ছুটি ঘোষণা করার পরেই সরকারিভাবে ছুটির বিজ্ঞপ্তি জারি করল রাজ্য সরকারে। এবারের ছটপুজো নভেম্বরের 2 ও 3 তারিখ পড়েছে অর্থাৎ শনিবার এবং রবিবার। শনিবার ও রবিবার ছট পুজোর ছুটি পড়ে যাওয়ার কারণে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই ছুটি বাড়িয়ে সোমবার পর্যন্ত করার ঘোষণা করেছেন।

মন্ত্রিসভায় ছুটি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই এমন বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। ছট পুজো উপলক্ষে ইতিমধ্যে মেতে উঠেছে ঝাড়খন্ড, বিহার, উত্তরপ্রদেশ। এমনকি বাংলাও বাদ যাচ্ছে না এতে। এবারের ছট পূজা শনি ও রবিবার হওয়ার ফলে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা করেন, শনি ও রবিবার ছট পূজা উপলক্ষে ছুটি থাকায় আগামী সোমবার অর্থাৎ 4 নভেম্বর ছুটি দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে নবান্নে।

শিলিগুড়িতে কমিশনারেট বিজয় সম্মিলনীতে মুখ্যমন্ত্রী এদিন জানান,” ছট পূজা এবারে আমরা 3 তারিখ পর্যন্ত ছুটি দিয়েছি। প্রতিটি উৎসবে আমাদের লক্ষ্য থাকে। এবারের ছট পুজোর শনি ও রবিবার পড়ে যাওয়ার ফলে আমরা সেটিকে অ্যাডজাস্ট করে সোমবার পর্যন্ত ছুটি করে দিয়েছি। যাতে এই উৎসবে সবাই আনন্দ করতে পারে। আমরা ছুটি বাড়িয়েছি কারণ, আমরা সর্বধর্ম সমন্বয় বিশ্বাস করি।” দুর্গাপূজা ভালোভাবে কাটার জন্য গত বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংবাদমাধ্যম এবং পুলিশ কর্মীদের ধন্যবাদ জানান।

একই সঙ্গে পুজো কমিটিকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি তিনি। এবার পূজোতে একটিও দুর্ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মন্ত্রিসভার ওই বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী এও জানান,” সামনে কালীপুজো রয়েছে, দীপাবলি রয়েছে। ছট পূজা রয়েছে। কালী পূজা এবং ছটপূজা যেহেতু রবিবার পড়েছে তাই ওর সাথে একটি অ্যাডিশনাল ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে ভাই ফোটার সাথে। এবারে ম্যাক্সিমাম ছুটি দিনগুলি রবিবারের মধ্যে পড়েছে। দুর্গাপূজার দিনটিও এবারে রবিবার পড়েছে। তবু আমরা অ্যাডজাস্ট করে সমস্ত কিছু করে দিয়েছি। রবিবারের দিন ছুটি পড়লে তার পরের দিন অর্থাৎ সোমবার আমরা অ্যাডিশনাল জুটি হিসেবে অ্যাডজাস্ট করে দিয়েছি। এবারে পরবর্তী ছুটির ক্যালেন্ডার আমরা খুব তাড়াতাড়ি প্রকাশ করব। আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে গেছে।”

Related Articles

Back to top button