রাজ্য সরকারের বড় ঘোষণা আবারো দীপাবলিতে টানা 10 দিনের ছুটির সুযোগ সরকারি কর্মীদের…

কিছুদিন আগে বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গোৎসব পার হল যেখানে দুর্গাপুজো ও লক্ষ্মীপুজো মিলিয়ে টানা 14 দিন ছুটি মিলেছিল রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের। মাঝে দুদিন ছুটি ম্যানেজ করতে পারলে কালীপূজা ও ছট পূজা মিলিয়েও টানা 10 দিন ছুটি মিলতে পারে আবারো সেই সরকারি কর্মচারীদের। আগামী 27 শে অক্টোবর রবিবার দিন হতে চলেছে কালীপুজো আর আগামী দিন শনিবার পড়ে যাওয়ায় এমনিতেই ছুটি পাবেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা।

আবার কালীপূজো রবিবার দিন পড়ে যাওয়ায় সোমবার দিন অতিরিক্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া তাদের মঙ্গলবার দিন এরকমই ভাইফোঁটার জন্য ছুটি থাকছে চলেছে।সাথে সাথে বুধবার দিন ভাইফোঁটা উপলক্ষে অতিরিক্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে পড়ে শনিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত টানা 5 দিন ছুটি পাবেন রাজ্যের এই সরকারি কর্মচারীরা।পাঁচ দিনের এই ছুটি শেষ করে তারপরে সরকারি অফিস খুলবে 31 শে অক্টোবর অর্থাৎ বৃহস্পতিবার দিন।

শনিবার দিন ছুটি সরকারি দপ্তরে আর ছোট পূজো পড়েছে রবিবার তাই 4 নভেম্বর অতিরিক্ত ছুটির ঘোষণা করা হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে এইসব কর্মচারীদের কথা মাথায় রেখে। আর এক্ষেত্রে টানা 3 দিন ছুটি পাচ্ছেন সেই সরকারি কর্মচারীরা। আর এক্ষেত্রে যদি কোনো সরকারি কর্মী বৃহস্পতি বার এবং শুক্রবার দিন ছুটি নিতে পারেন তাহলে তিনি টানা 10 দিনের ছুটি পেয়ে যাচ্ছেন যা যে কোনো মাঝারি ভ্রমণে যাওয়ার ক্ষেত্রে যথেষ্ট।

কিছুদিন আগে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ফেডারেশন সভায় বলেছিলেন এত সরকারি ছুটি কী কর্মীদের আগে দেওয়া হতো? যদিও এই অতিরিক্ত ছুটি কে ভালো ভাবে নিচ্ছেন না সেসব সরকারি কর্মচারীদের সংগঠন কর্মচারী যৌথ মঞ্চ। যেসব সরকারি কর্মীদের দাবি তাদের ন্যায্য পাওনা পাওয়া যাচ্ছে না। স্যাটের নির্দেশ মেনে মহার্ঘ ভাতা না দিয়ে নতুন বেতন কমিশন ঘোষণা করে দিয়েছে রাজ্য সরকার। তাদের দাবি এই বাড়তি ছুটি দিয়ে সরকারি কর্মীদের তুষ্ট করতে চাইছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এতে সরকারি কর্মীদের লাভ কিছুই হচ্ছে না। শুধু তাই নয় পরিকল্পনা করে এই সমস্ত ছুটি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলতে শুরু করেছে একাধিক সরকারি কর্মচারী সংগঠন।