Uncategorized

বিশ্বের এই ধনীতম ব্যক্তির সম্পত্তি বিল গেটস এর চেয়েও অনেকগুণ বেশি। সম্পত্তির পরিমাণ জানলে চমকে যাবেন।

বিশ্বে অনেক ধনী ব্যক্তি রয়েছেন। যাদের কাছে এত সম্পত্তি থাকে যে যার কোন হিসাব থাকে না। বর্তমানে বিল গেটস,  মুকেশ আম্বানি অথবা সৌদি আরবে শেখরা হোন না কেন তাদের কাছে প্রচুর প্রচুর টাকার সম্পত্তি রয়েছে। কিন্তু আমাদের মনে প্রায় প্রশ্ন উঠে বিশ্বের সবথেকে ধনী ব্যক্তি কে?
আপনাদের জানিয়ে দিই,”সেলিব্রেটি নেট ওয়ার্থ ” নামক একটি সংস্থা সমীক্ষা চালিয়েছে যে বিশ্বের সবথেকে ধনী ব্যক্তি কে। হিসাব করে দেখা যায় , যদি ১৯৯৩ এর ১০০ বিলিয়ন ডলার  থাকে তা হলে ২০১৩-তে সেটি হয়ে দাঁড়াবে ২২৯৯.৬৩ বিলিয়ান ডলার ।

শুধু তাই নয় এর সমীক্ষায় দেখা গেছে যে বিশ্বের ২৫ জন ধনী লোকের মধ্যেই ১৪ জন আমেরিকান ছিলেন এবং তার মধ্যে একমাত্র বর্তমানে ” বিল গেটস ” জীবিত রয়েছেন। গোটা বিশ্বের ইতিহাসে শেষমেশ যে নামটি সবথেকে ধনী ব্যক্তির লিস্টে ওপরে উঠে এসেছে তার নাম অনেকেই হয়তো শুনেননি। তার নাম হলো “মনসা মুসা”। মনসা মুসা আফ্রিকার এক সুবিশাল সাম্রাজ্যের অধিপতি ছিলেন,এবং তার সম্পত্তি বিল গেটস এর থেকেও অনেক গুণ বেশি ছিল । এই সাম্রাজ্যের সৃষ্টিকর্তার ভাগ্নে ছিলেন তিনি। এবং ১৩০৭ সালে  এই সাম্রাজ্যে চালানোর ভার নেন । তিনি এমন শাসক ছিলেন যে সারা ইউরোপে তার রাজ্য দ্রুত বিস্তার করেছিল। সংস্থাটি পর্যবেক্ষণ করে পুরোপুরি সঠিক না পড়লেও আনুমানিক মুসার সম্পত্তি ছিল ৪০০ বিলিয়ন এর অধিক।

অনেক লোক বলেন,  মুসা যখন সৌদি আরবে হজের জন্য পাড়ি দেন  , তখন তার সাথে ৬০,০০০ জন লোক ছিল শুধু ব্যাগ বহন করার জন্য। সঙ্গে ৫০০ জন গোলাম যারা হাতে সবাই একটি করে সোনার ডন্ড নিয়ে ছিল এবং সাথে যাচ্ছিল ৮০ থেকে ১০০টি উট ও  প্রত্যেক উটের পিঠে ১৪০ কেজি করে সোনা ছিল । মুসা যখন তার প্রথম স্ত্রীর সাথে এই যাত্রা শুরু করেন, তখন এই যাত্রা পথের মধ্যে তিনি কয়েকশো কোটি টাকার সোনা বিতরণ করেন তার ফলে সে সময় সৌদি আরবে সোনার দাম কমে যায়। এছাড়াও মুসার স্ত্রীর খাতির এর জন্য ৫০০ জন দাসী ওই যাত্রায় মজুদ ছিল , সাথে সাথে ছিল চিকিৎসক, সরকারি কর্মকর্তা,  সংগীত কার  ইত্যাদি আরো অনেকে। এবং ফেরত আসার সময় তিনি উটে করে , জ্যোতির্বিজ্ঞান, ভূগোল, ইতিহাস, গণিতবিদ্যা ইত্যাদি শাস্ত্রের বই তিনি নিয়ে আসেন।

তবে প্রচলিত আছে যে, ওই ঐতিহাসিক হজে মুসা  মোট ১ লাখ ৫০ হাজার পাউন্ড সোনা ব্যয় করেছিলেন শুধু তাই নয় তিনি ৪০০ টি শহরকে আধুনিক ভাবে গড়ে তোলেন ।  ২৫ বছর রাজত্ব করার পর তিনি মৃত্যুবরণ করেন । তবে তার মৃত্যু কিভাবে হয়েছিল তা পষ্ট জানা যায়নি।

Related Articles

Back to top button