প্রকাশিত হল সার্ভের ফলাফল আগামী দুবছরে চীনকেও পিছনে ফেলে এগিয়ে যাবে ভারত।

অনেকদিন থেকেই ভারতের জিডিপি  উন্নতির পথে একটি কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছিল কিন্তু মোদি সরকার আসার পর থেকেই দেশের জিডিপি অনেকটাই উপরে উঠেছে। ২০১৮ মতো আবারো ২০১৯ এও খুব দ্রুতগতি তে বাড়তে চলেছে দেশের জিডিপি। বিশ্ব ব্যাংক জানিয়েছে, আগত দু’বছরের মধ্যে ভারতকে আর অর্থনৈতিক দিক থেকে পিছনে তাকিয়ে দেখতে হবে না। ভারতে জিডিপি এরকম বাড়তে থাকলে , ভবিষ্যতে অনেক দেশকে ভারত পিছনে ফেলে দেবে। ২০১৮-২০১৯ এ ভারতের জিডিপি বৃদ্ধি হবে ৭.৩ শতাংশ। এবং বিশ্বব্যাংক এমনটাই জানিয়েছে ভবিষ্যতে আগত দু বছরে জিডিপি ৭.৫ শতাংশ।

আর এই পরিপেক্ষিতে অদূর ভবিষ্যতে ভারত সর্বোচ্চ অগ্রসীল দেশ হিসেবে বিবেচিত হতে চলেছে। ইতিমধ্যে , বিশ্ব ব্যাংকের পক্ষ থেকে সবথেকে অগ্রশীল দেশ হিসাবে ভারতের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। যেখানে চীনের জিডিপি কিছুটা হ্রাস পেয়ে ২০১৮-২০১৯ এ জিডিপি থাকবে ৬.৩ শতাংশ । এছাড়াও ভবিষ্যতে চীনে জিডিপি আরো কমে ৬ শতাংশে  দাঁড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখছে  বিশ্ব ব্যাংক। শুধু তাই নয় , আগামী বছরে ভারতে রপ্তানির পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে চলেছে । এর সাথে  বাইরে থেকে ভারতের মধ্যে আরো নতুন নতুন কোম্পানি আসবে, তার ফলে বাড়বে বিনিয়োগের পরিমাণ। নিঃসন্দেহে বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী  বিশ্বে এই মুহুর্তের সবথেকে অগ্রগামী দেশ এখন ভারত। ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের “গ্লোবাল ইনকাম প্রস্পেক্ট রিপোর্ট” গত মঙ্গলবার প্রকাশিত হয়।

সেখানে এই তথ্য পরিষ্কারভাবে দেওয়া হয়েছে । আগত দু’বছরের মধ্যে চীন কেও জিডিপির দিক থেকে হার মানাতে চলেছে ভারত। ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের ইনকাম প্রস্পেক্ট রিপোর্টের অধিকর্তা  আইহান কোসে জানিয়েছেন , ” ভারতে জিডিপি এমনটাই বাড়তে থাকলে কিছুদিনের মধ্যে ভারত চীনের থেকেও এগিয়ে যাবে, এবং ভারতের বিগত বছরে আরো জিডিপি বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। ভারত শিল্প , ব্যবসা ও বিনিয়োগের দিক থেকে আরও উন্নতি সাধন করতে চলেছে”। তো বন্ধুরা আপনাদের এ বিষয়ে কি মতামত তা আমাদের অবশ্যই জানাবেন।