নতুন খবররাজনৈতিক

জনতা বলছে মুখ্যমন্ত্রী হওয়া উচিত যোগীর মত ! করে দিলেন এমন কাজ কি পুরো দেশ জানাচ্ছে সেলাম !

এ সম্পর্কে কোনো দ্বিমত নেই যে, যোগী সরকার যখন থেকে উত্তরপ্রদেশের দায় ভার সামলাচ্ছেন আগের তুলনায় উত্তরপ্রদেশে আরো নতুন নতুন বদল দেখা যাচ্ছে। আপনাদের জানিয়ে দি যে, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বিজেপির দলের একজন মুখ্য নেতা। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এমনই একটি ঘোষণা করলেন ,যার জন্য কেবলমাত্র বিজেপি সমর্থক ছাড়াও , বিজেপির দলের বিরোধী পার্টি রাও তার প্রশংসা করতে লাগলো। আসুন আপনাদের জানিয়ে দি যে, যোগী সরকার এমন কি ঘোষণা করলো যার জন্য বিরোধী দলও তার প্রশংসায় মুখর।

আপনাদের জানিয়ে দি, ইউপিএর সিএম প্রথমত সেখানকার বাসিন্দাদের পৌষ পার্বণ উপলক্ষে সকলকে শুভকামনা জানালেন ,সেইসঙ্গে এও অবসরে তিনি সেখানকার নাগরিকদের সাথে সাথে ,সন্ন্যাসীদের ও শুভকামনা জানালেন। এবং তিনি এও বললেন, এই অবসরে কুম্ভ তাদের একটি নতুন দিক দেখাবে , সেই সঙ্গে তিনি এই ঘোষণাটি ও করলেন। এই সময় আপনারা ও এটাই ভাববেন যে যোগী সরকার এমন কি ঘোষণা করলেন? যার জন্য বিরোধী দল গুলি ও তার প্রশংসা করতে থকেনি। আপনাদের জানিয়ে দি, সিএম যোগী আদিত্যনাথের ঘোষণাটি ,সেই প্রদেশের সকল ধর্মের , নিরোক্ষিত বৃদ্ধ , মহিলা ও প্রতিবন্ধীদের সম্মন্ধে বলা। যোগীর এই ঘোষণাটি অনুসারে উত্তরপ্রদেশের সকল নিরক্ষিত বৃদ্ধ, মহিলা এবং সেইসঙ্গে প্রতিবন্ধীরাও এবার থেকে বাড়িতে বসে পেনশন পাবে।

তিনি পেনশনের রাশিটি কেউ ৪০০ থেকে বাড়িয়ে ৫০০ টাকা করে দিয়েছেন। এটার জন্য তিনি ৩০ শে জানুয়ারি উত্তরপ্রদেশে একটি সোশ্যাল ক্যাম্পের আয়োজন করেছে এবং তিনি জানিয়েছেন যে এখানে জাতি – ধর্ম নির্বিশেষে সকল মানুষদের এর আওতায় আনা হবে। তিনি সেখানকার সাধু- সন্ন্যাসীদের ও পেনশন দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। আরো এরকম নতুন খবরের আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েব পোর্টালটিতে।

Related Articles

Back to top button