নতুন খবররাজনৈতিকরাজ্য

মমতার ব্রিগেড সমাবেশের অভিযোগকে খন্ডন করে পাল্টা জবাব দিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

মোদি সরকারের পক্ষ থেকে উঠে আসছে একটি ব্রেকিং নিউজ। হ্যাঁ বন্ধুরা, মোদি সরকার মমতার ব্রিগেড সমাবেশের অভিযোগকে খন্ডন করে পাল্টা জবাব দিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গতকালীন তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকা ঐতিহাসিক সমাবেশে দেশের অনেক রাজ্য থেকে নামিদামি নেতা মন্ত্রী ও তারকারা উপস্থিত ছিলেন এবং এই জোটকে হাতিয়ার করেই মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোদি সরকারের উপর তোপ দাগলেন। এবং প্রধান মন্ত্রীকে প্রেক্ষাপট করে যে যে অভিযোগ তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করেছেন, তার পরিপ্রেক্ষিতেই এবার পাল্টা তীর ভারতীয় জনতা পার্টির প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বক্তব্য,

(ক) যারা দেশকে এতদিন থেকে লুটে যাচ্ছিল তাদের বাঁধা দিয়েছে বিজেপি সরকার এবং তাদেরকে এবার একজোট করছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

(খ) গুজরাটের একটি সমাবেশ থেকে তিনি আরও বলেন, যারা একসময় কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ছিল তারা এখন জোটের পথে নেমেছে । এটি বিজেপির বিরুদ্ধে জোট নয়, সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে করা জোট।

(গ) বিরোধী নেতাদের দেখছে দেশের মানুষ তথা দেশের ভোটাররা, এবং তারা বুঝতে পারছে আসল লড়াই কোথায় ;  এটি উন্নয়নের বিরুদ্ধে দুর্নীতির লড়াই।

(ঘ) আমি নোট বন্দি করণ করে ওদের বাড়া ভাতে জল ঢেলে দিয়েছি। এটা ঠিক জনতার টাকা লুট বন্ধ করে দেওয়ায় ওরা ক্ষুব্দ। তাই এবার শেষমেষ ওরা জোটের পথে নেমেছে।

(ঙ) মোদির সংসদ সরকারের বাংলায় মাত্র একটি সাংসদ রয়েছে। আর তার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য দেশের সকল নেতাকে প্রয়োজন পড়ছে তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের।

সুতরাং, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ব্রিগেড সমাবেশের পরিপেক্ষিতে বলা এই পাঁচটি জবাব তৃণমূল কংগ্রেসকে নিশ্চুপ করে দিয়েছে। যদিও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই বক্তব্যের পাল্টা জবাব তৃণমূলের পক্ষ থেকে এখনো কিছু আসেনি।

Related Articles

Back to top button