আগের তুলনায় ৩ গুণ বাড়ানো হচ্ছে মাধ্যমিক পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা, এক-একটি পরীক্ষাকেন্দ্রে দু’শোর বেশি ছাত্র-ছাত্রী নয়! ভাবনা রাজ্যের

মাধ্যমিক পরীক্ষার সূচি ঘোষণা করেছে পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ৷ কিভাবে ২০২১ এর মাধ্যমিক নেওয়া হবে তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। এবছর মাধ্যমিকের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য কোন টেস্ট পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না৷ সব ছাত্রছাত্রীই সরাসরি মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবেন।

সূত্রের খবর,  এবছর পরীক্ষার্থীর সংখ্যা অনেকটাই বেশি৷ প্রায় ১৪ লাখের কাছাকাছি। এমনটাই অনুমান পর্ষদের আধিকারিকদের। তাই এবার মাধ্যমিক পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ছে তিনগুণ। গতবার মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্র ছিল ২৮৩৯ টি। এবছর সেই সংখ্যাটা হতে পারে প্রায় ৭ হাজার। আলোচনা করা হচ্ছে, এক একটি পরীক্ষা কেন্দ্রে ২০০ বেশি ছাত্র-ছাত্রী কোনওভাবেই পরীক্ষা দিতে পারবে না। করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই যাবতীয় পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে।

১ জুন ২০২১ থেকে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। শেষ হবে ১০ জুন। সিলেবাস কমানো হয়েছে, পরীক্ষার সিলেবাস জানিয়েছে পর্ষদ। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক দুটি ক্ষেত্রেই ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ সিলেবাস কমানো হয়েছে।  ইতিমধ্যেই পর্ষদের তরফে কোন অধ্যায় থেকে কতগুলি করে প্রশ্ন থাকবে সে বিষয়ে বিস্তারিত ধারণা দেওয়া হয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের৷

 

নেতাজির এই পদক্ষেপে আজও ভয়ে কাঁপে চীন, আজ থেকে ৭৭ বছর আগে নেওয়া হয়েছিল সেই পদক্ষেপ

 

পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা বেড়ে যাওয়াতে পরিকাঠামোগত কিছু পরিবর্তন দরকার বলে মনে করছেন পর্ষদের আধিকারিকরা। এতদিন ধরে সেই সব স্কুলগুলিকে পরীক্ষাকেন্দ্র হিসেবে বিবেচনা করা হত যেখানে সব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় অন্যান্য পরীক্ষা কেন্দ্রের পরিকাঠামোগত প্রস্তুতি খতিয়ে দেখা দরকার৷ সে ক্ষেত্রে প্রয়োজনে সেই স্কুলগুলির পরিকাঠামোগত উন্নতি না থাকলে তার সুপারিশও করা হতে পারে। যদিও এই বিষয় কোনও মন্তব্য করতে চাননি মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়।