‘হাম রাহে ইয়া না রহে কাল’ KK এর জীবনের প্রথম অ্যালবামের গান শেষ অনুষ্ঠানে ছুয়ে গেল ভক্তদের মন, দেখুন ভাইরাল ভিডিও

এখনো কেন বিশ্বাস হচ্ছে না কথাটা। এখনো যেন মনে হচ্ছে কোন স্বপ্ন দেখছি আমরা। একজন সঙ্গীত শিল্পী মঞ্চে গান গাইতে গাইতে নিজের জীবনের শেষ মুহূর্ত উদযাপন করবেন সে ভাগ্য সকলের হয়ে ওঠে না। এমন একটি অসাধারণ ভাগ্য নিয়ে এসেছিলেন কে কে। গতকাল হাজার হাজার মানুষের সামনে শেষ বারের মত গান গেয়েছিলেন প্রয়াত অভিনেতা কে কে। তিনি আজ আর নেই। গতকাল নজরুল মঞ্চে লাইভ শো করেছিলেন এই সংগীতশিল্পী। মঙ্গলবার উল্টোডাঙার গুরুদাস কলেজের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য এসেছিলেন তিনি। অসংখ্য ছাত্র ছাত্রীরা সংগীতশিল্পীকে দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিলেন বেশ কয়েক দিন ধরে।

মুম্বাই থেকে গতকাল কলকাতায় এসে পৌঁছে ছিলেন তিনি এবং সেই সমস্ত ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামের একাউন্টের মাধ্যমে শেয়ার করতে থাকেন সংগীতশিল্পী। বিমানবন্দরের ছবি শেয়ার করে তিনি লিখেছিলেন, নজরুল মঞ্চে এক জমজমাট অনুষ্ঠান, বিবেকানন্দ কলেজ, সবাইকে অনেক ভালোবাসা আমার তরফ থেকে। সাড়ে আটটা নাগাদ শেষ করেই গ্র্যান্ড হোটেলে ফিরে যান তিনি যদিও তার আগে থেকেই অসুস্থ বোধ করতে শুরু করেন সংগীতশিল্পী।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি অনুযায়ী, অনুষ্ঠান চলাকালীন বারবার অস্বস্তি বোধ করেছিলেন প্রয়াত সংগীতশিল্পী। ঘন ঘন জল খাচ্ছিলেন তিনি। বারবার ঘাম মুছে ছিলেন রুমালে। হাজার হাজার মানুষের ভিড়ে এসি বন্ধ করে দেওয়ার ফলে আরো বেশি অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছিলেন সংগীতশিল্পী। মাঝে কুড়ি মিনিটের বিরতি নিয়েছিলেন তিনি। শেষমেষ থাকতে না পেরে স্পটলাইট বন্ধ করতে বলেছিলেন। গান শেষ হতেই ব্যাকস্টেজে চলে গিয়েছিলেন সংগীতশিল্পী।

হোটেলে যেতে যেতে শীত অনুভব করছিলেন তিনি এবং হোটেলে ঢুকতে না ঢুকতেই অজ্ঞান হয়ে যান কে কে। এরপর তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে দেওয়া হয়। গতকাল নজরুল মঞ্চে মোট ২০টি গান গেয়েছিলেন তিনি কিন্তু সর্বশেষ গানটি গেয়েছিলেন, হাম রাহে না রাহে কাল, ইয়াদ আয়েঙ্গে ইয়ে পাল। যেন নিজের শেষ মুহূর্তের গান নিজের সুরের মূর্ছনায় সকলের মনে গেঁথে দিয়ে গেলেন তিনি। সত্যিই এমন ভাগ্য সকলের হয় না।