ভারতীয় দূতাবাস এবার আফগান হিন্দু এবং শিখদের আশ্রয় দেবে, বড় ঘোষণা বিদেশমন্ত্রকের

তালিবানরা আফগানিস্তানের দখল নেওয়ার পর শেষ পর্যন্ত কাবুলের দূতাবাস বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল ভারত (INDIA) ।আফগানিস্থানে আটকে থাকা ভারতীয়দের উদ্ধার করাটাই এ ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার। তবে আফগান শিখ এবং হিন্দুদের উদ্ধার করতেও সাহায্য করবে ভারত। দূতাবাসের সমস্ত কর্মীদেরও দেশে ফিরিয়ে আনার প্রস্তুতি চলছে জোর কদমে। বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি এই বিবৃতি জারি করে জানিয়েছেন, যাত্রী বিমান পরিষেবা শুরু হলেই আফগান শিখ এবং হিন্দুদের ভারতে আসতে সাহায্য করা হবে।

এছাড়াও আফগানিস্তানের থাকা সমস্ত ভারতীয় দের নিরাপত্তার বিষয়টিও সুনিশ্চিত করা হচ্ছে বলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে। বিদেশ মন্ত্রকের তরফে সোমবার সাংবাদিক বৈঠক করে এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। এই বিষয়ে উল্লেখ করে বাগচি বলেন, ” আমরা আফগানিস্তানে হিন্দু এবং শিখ সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে নিরন্তরযোগাযোগ রেখে চলেছি। যাঁরা ভারতে ফিরতে আগ্রহী, সরকারের তরফে তাঁদের সবরকম সহযোগিতা করা হবে”।

এমনকি যে সমস্ত আফগান সদস্যরা ভারতের সঙ্গে কাজ করেছেন, অর্থাৎ সেখানকার কূটনৈতিক ব্যক্তিত্বদের ওআফগানিস্তান থেকে নিয়ে আসার বিষয়ে সাহায্য করবে বলে জানানো হয়েছে। শেষ বিষয়টিতেই ভারত যে নিজেদের স্বার্থ বিবেচনা করেই আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে সে কথা বলা হয়েছে।

একটি বিবৃতিতে বাগচি জানিয়েছেন,” আফগানিস্তানে পরিস্থিতির ওপর লাগাতার উচ্চপর্যায়ের নজর রাখা হচ্ছে। ভারতীয়দের সুরক্ষা, নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য এবং নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করার জন্য ভারত সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করবে “। যে সমস্ত আফগান নাগরিকরা ভারতে আসতে চান,তাদের জন্য দ্রুত নতুন ই -ভিসার ব্যবস্থা করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এদিকে বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে,ভারতীয় বায়ুসেনার C-17 যুদ্ধবিমান ১২০ জন ভারতীয় দূতাবাসের কর্মীকে নিয়ে কাবুল থেকে উড়ে গিয়েছে।

তালিবান শাসিত আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে ভারতের অবস্থান গ্রহণ যে অত্যন্ত কঠিন সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। বর্তমান তালিবানি শাসন কে ভারত সরকার কীভাবে দেখবে, তা নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে ঠিক হলেও, তালিবানের সঙ্গে ‘ ব্যাক চ্যানেল ‘ আলোচনার রাস্তা খোলার প্রক্রিয়া আগে থেকেই শুরু করে দেওয়া হয়েছিল বলে বিদেশ মন্ত্রক সূত্রের খবর।

বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি

আফগানিস্তানের পরিকাঠামো সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পে কয়েক হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে ভারত। এদিন, বিদেশ মন্ত্রকের তরফ এ জানানো হয়েছে, এ প্রকল্পগুলি নির্মাণে আফগানিস্তানের যারা ভারতকে সহযোগিতা করেছে, সব রকম ভাবে তাদের পাশে থাকবে ভারত সরকার।