সরকারও দেবে ভর্তুকি! মাত্র ৫০ হাজার টাকা দিয়ে শুরু করুন এই ব্যবসা আয় করবেন ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত

বর্তমানে এই করোনা পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ হারিয়েছে রুজি-রোজগার। কর্মহীন হয়েছেন অনেকেই। আপনিও যদি এই সমস্যায় পড়ে থাকেন এবং কোন ব্যবসা থেকে ভালো উপার্জন করতে চান তবে মাশরুমের চাষ করা অনেকটাই লাভজনক হবে। এর মাধ্যমে অনেক বেশি মুনাফা পাওয়া সম্ভব। বিশেষ বিষয়টি হলো, ঘরে বসে সহজেই এই ব্যবসা শুরু করা যায়।

মাশরুমের ব্যবসা অত্যন্ত লাভজনক। পুষ্টি এবং ওষুধ সামগ্রী তৈরি করার পাশাপাশি মাশরুমের রপ্তানিও করা হয়।মাত্র ৫০ হাজার টাকা দিয়েই এই ব্যবসা আপনি শুরু করতে পারেন। এই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন —

১) মাশরুম চাষের পরিকল্পনা :-

আমাদের দেশে মাশরুম চাষ ছোট থেকে বড় পর্যায়ে হয়। কোন রকমের ব্যয় ছাড়াই আপনি প্রতিমাসে ঘরে বসে ভালো টাকা আয় করতে পারেন এই মাশরুম চাষ করে।

২) মাশরুম চাষের পদ্ধতি:-

আপনি যদি এই ব্যবসা থেকে ভালো আয় করতে চান তবে এই মাশরুম চাষ সম্পর্কে আপনাকে ভালোভাবে ওয়াকিবহাল থাকতে হবে। প্রতি বর্গমিটারে ১০ কেজি মাশরুমের চাষ অনায়াসেই করা যেতে পারে। ৪০×৩০ ফুট জায়গাতেই তিন ফুট চওড়া রেক বানিয়ে সেখানে মাশরুম চাষ করা যেতে পারে। আর এই ব্যবসায় আপনি সরকারি ভর্তুকির ও সুবিধা পাবেন।

৩) কম্পোস্ট তৈরির উপায় সম্পর্কে জেনে নিন :-

কম্পোস্ট তৈরির জন্য প্রথমে ধানের স্ট্র -কে ভেজাতে হবে। আর-একদিন পর তাতে ইউরিয়া, পটাশ, ডিএপি, ভুষি দিয়ে সেটিকে পচানোর জন্য রাখতে হবে। প্রায় দেড় মাস সময় লাগে এই কম্পোস্ট তৈরীর জন্য। এরপর গোবর দিয়ে তৈরি ঘুঁটে এবং মাটি দিয়ে সেটিকে ভালোভাবে মিশিয়ে প্রায় দেড় ইঞ্চি স্তর বিছিয়ে কাজ করতে হবে। এর মাধ্যমেই মাশরুম চাষ শুরু করা সম্ভব।

৪) মাশরুম চাষের জন্য নিজস্ব ট্রেনিং :-

সমস্ত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কৃষি অনুসন্ধান কেন্দ্রগুলিতে মাশরুম চাষের ট্রেনিং দেওয়া হয়ে থাকে। আপনি যদি এই ব্যবসা বড় পরিমাণের শুরু করতে চান, তাহলে আপনি ভালোমতো প্রশিক্ষণ নিয়ে নিন।

৫) প্রাথমিক বিনিয়োগ সম্পর্কে জেনে নিন :-

মাশরুম চাষের জন্য ৫০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে শুরু করুন।সরকারের তরফ থেকে৪০ শতাংশ পর্যন্ত ভর্তুকি পাবেন। এই চাষের জন্য লোনের ব্যবস্থা ও করে দিচ্ছে সরকার।

৬) টোটাল ইনকাম সম্পর্কে জেনে নিন :-

আপনি যদি এই ব্যবসা ভালোমতো শুরু করেন তাহলে লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। যদি আপনি ১০০ বর্গফুট জায়গায় মাশরুম চাষ শুরু করেন, তাহলে প্রতি বৎসর ১ লক্ষ থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন অনায়াসেই।