দেশনতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

বাইক চালকদের জন্য বেরিয়ে এলো সুখবর! এবার থেকে জরিমানা দিতে ছুটতে হবে না আর ব্যাঙ্কে…

বাইক চালকদের জন্য সুখবর আসতে চলেছে। এবার বাইক চালকদের জন্য নতুন নিয়ম আসতে চলেছে যার দরুন বাইক চালককে ট্রাফিক পুলিশ জরিমানা করলে ওই স্পটেই টাকা জমা দেওয়ার সুবিধা থাকছে। এতদিন কোন বাইক আরোহীকে ট্রাফিক পুলিশ ফাইন করলে ট্রাফিক পুলিশের তরফ থেকে একটি চালান দেওয়া হত এবং সেই চালান ব্যাংকে নিয়ে গিয়ে ওই বাইক আরোহী কে ফাইনের টাকা জমা দিতে হয়।

শুধু তাই নয় চালান কাটার সময় বাইক আরোহীর যাবতীয় নথিপত্র জমা রাখতো ট্রাফিক পুলিশের হাতে। ফলে ব্যাংকে গিয়ে ফাইন দেওয়ার পর ওই চালান ফের বাইক আরোহী কে নিয়ে আসতে হয় ওই ট্রাফিক পুলিশের কাছে তারপর নথিগুলি সে ফেরত পাই। ফলে এই পুরো বিষয়টি অনেক সময় সাপেক্ষ এবং পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে আরোহীদের অনেক ঝক্কি পোহাতে হয়। তাই ট্রাফিক পুলিশের তরফ থেকে এবার অ্যাপের মাধ্যমে স্পটেই ফাইন জমা নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তবে এই ব্যবস্থা এখনো সব জায়গায় চালু করা হয়নি শুধুমাত্র শিলিগুড়িতে চালু করা হয়েছে এই নিয়মটি। সম্প্রতি এমনই এক অ্যাপ চালু করল শিলিগুড়ি ট্রাফিক পুলিশ। সোমবার এই অ্যাপ ব্যবহার করে ফাইন নেওয়া হয় বলে জানা গিয়েছে। এই অ্যাপে কোন ট্রাফিক পয়েন্টে জরিমানা করা হচ্ছে সেই জায়গার নাম এবং এলাকার নাম দিতে হবে। এবং এর সাথে সাথে চালককে গাড়ির নম্বর এবং মোবাইল নম্বরও দিতে হবে ওখানে। এরপর জরিমানার অর্থ ওই বাইকআরোহীকে সেই ট্রাফিক পুলিশের হাতে জমা দিয়ে দিতে হবে।

ফলে এবার ব্যাংকের লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে ফাইন দেওয়ার হাত থেকে রেহাই মিলবে। লাইসেন্স সঙ্গে নিয়ে যাননি? হেলমেট পড়েননি? বা দূষণ, ব্লু কাগজ নেই? এবার যাবতীয় ফাইন কাটা হবে একটি স্মার্ট মোবাইল ট্যাবের মাধ্যমে। এবং ওই ট্রাফিক পুলিশকে ওখানে দাঁড়িয়েই ফাইন দিতে হবে চালককে। আজ থেকেই এই নতুন নিয়ম বেশ কয়েকটি ট্রাফিক পয়েন্টে চালু হয়ে গেছে বলে জানানো হয়েছে। এমন কী সঙ্গে সঙ্গে জরিমানার অর্থ আদায় করা হয়েছে। ধীরে ধীরে সমস্ত ট্রাফিক পয়েন্ট গুলিতেও এই নতুন পদ্ধতিতে জরিমানা আদায় করা হবে বলে জানানো হয়েছে পুলিশ প্রশাসনের তরফ থেকে।

Related Articles

Back to top button