মন্ত্রী ও নেতাকর্মীদের উদ্দেশে “মমতা”র চরম হুঁশিয়ারি। না পড়লেই জীবন হবে বৃথা।

গতকাল ইন্ডোর স্টেডিয়ামে তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠক হয়েছিল। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় চরম বার্তার মাধ্যমে হুঁশিয়ার করলেন দলের সকল কর্মীকে। আর সেগুলি হল,

(১): যারা কাজ করবেন তারা মন দিয়ে কাজ করুন।কাজ ঠিকঠাক না করলে দল থেকে নামটা কেটে দেব।

‌(২): যারা টাকার লোভে এসব করতে চাইছেন তারা মনে রাখবেন যে টাকা নিশ্চয়ই পাবেন। কিন্তু…. টাকা পেলেও কেউ আপনাকে সেই যোগ্য সম্মান দেবেনা।

‌(৩): তার কথা অনুযায়ী ,তিনি রোজ ভগবানের কাছে দলের জন্য প্রার্থনা করেন । তার মত অনুযায়ী, দল থাকলে আপনি হিরো আর না থাকলে আপনি কিছুই নন।

‌(৪): তিনি আরো বলেন আমি যদি সমগ্র পশ্চিমবঙ্গ কে পরিচালনা করতে পারি তাহলে আপনারা কেন পারবেন না ?

‌(৫): (জঙ্গলমহল নিয়ে) আপনারা যদি কোন কাজ না করেন তাহলে আপনাদের বদলে নতুন আরো ১০ জনকে নিয়ে আসতে পারবো। এরকম করলে আমার কোন ক্ষতি নেই ক্ষতি হবে আপনাদের।

‌(৬): তিনি একথাও বলেন যে ,এবার থেকে বিধানসভায় বিধায়কেরা উপস্থিত না থাকলে তাদের সব টাকা কাটা যাবে।

‌(৮): বিধায়কেরা যদি ভাবছেন যে, এটা তো শুধু এমপিদের লোকসভা নির্বাচন তাহলে তারা ভুল ভাবছেন। কারণ,এমপিরা না থাকলে আপনারাও থাকবেন না।

‌(৯): প্রতিটি বুথ গুলিতে ৩০টি করে দেওয়াল লিখুন । কিন্তু নতুন রং করা দেওয়াল গুলি নষ্ট করবেন না।

(১০): জেলায় গেলে শুধু একটাই কথা ১০০ কোটি টাকার ব্রিজ চাই। তিনি সরাসরি বললেন কোন ব্রিজ হবে না , আগে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ করার ব্রিজ করুন।

(১১):কারো ছবি দিয়ে পোস্টার করবেন না। আমি এটা দিওয়ালিতে লক্ষ্য করেছি। আমার ছবি বা নাম দিয়ে পোষ্টার হোক তা আমি চাইনা।

(১২): একবার এক বৃদ্ধা আমাকে বলেছিল- ” তিনি কন্যাশ্রী টাকা পান না” তারপর আমি জিজ্ঞেস করলাম আপনার বয়স কত? ওর কোন দোষ নেই। কিন্তু ওনাকে তো বোঝাতে হবে ,মানুষকে বোঝানোর দায়িত্ব কে নেবেন।দেখি হাত তুলুন তো, তার মানে তো সবাই কাজ করতে চাইছে না।
গতকাল এই হুঁশিয়ারি মধ্য দিয়ে মমতা ব্যানার্জির বক্তব্য পরিষ্কার হয়ে গেল। আরো লেটেস্ট নিউজ এর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েবপোর্টালে।