মেয়েদের প্রকৃতি জানার সহজ উপায় লুকিয়ে রয়েছে তাদের চুলেই, জেনে নিন সেই টিপস

‘চুলের আমি চুলের তুমি, চুল দিয়ে যায় চেনা’ মহিলাদের শারীরিক গঠন দেখে অনেকেই তাদের চরিত্র সম্পর্কে ধারণা করে থাকেন। তবে এবার থেকে মহিলাদের চুলের গঠন কি রকম সে দেখেও তাদের চরিত্র সম্পর্কে ধারণা করা যাবে। যে কোন পুরুষের জীবনে নারীর ভূমিকা অপরিসীম । আপনি বিবাহিত হন কিংবা অবিবাহিত, প্রেমে পড়েছেন কিংবা প্রেমে মজেছেন, নারী আপনার বন্ধু হোক কি প্রেমিকা স্ত্রী হোক বা আত্মীয়া সবক্ষেত্রেই কোনো না কোনো মহিলার উপস্থিতি রয়েছে আপনার জীবনে।

কিন্তু কথাতেই আছে নারী চরিত্র বেজায় জটিল । স্বয়ং ভগবানেরও সাধ্যি নেই এদের চরিত্র নির্ধারণ করা আমার আপনার মত সাধারন মানুষ তো কোন ছাড়।নারী চরিত্র বরাবরই পুরুষের চোখে রহস্যময়ী।এই রহস্যের উদ্ঘাটন করা খুব একটা সহজ ব্যাপার নয় ,তবে এবার সহজ হতে চলেছে নারী চরিত্র সম্পর্কে জানা যদি মিস করতে না চান তাহলে অবশ্যই পড়ুন এই আর্টিকেলটি । শারীরিক গঠন দেখে নারী চরিত্র কেমন হবে সেটা বলা গেলেও এবার থেকে চুলের গঠন কেমন তা দেখেও নারী চরিত্র হতে পারে তা বলার সহজ হয়ে যাবে। আসুন দেখে নিই বিস্তারিত ভাবে।

লম্বা চুল:-

প্রথমেই আসি লম্বা চুলের কোথায়। সেকেলে যুগ থেকে বর্তমান আধুনিক যুগ বরাবরই মেয়েদের লম্বা চুল দৃষ্টি আকর্ষণ করে এসেছে। মেয়েদের লম্বা চুল পুরুষ জাতিকে বরাবরই আকর্ষণ করে। চুল নারীর ভূষণ তবে আগেকার দিনে নারী বিধবা হলে তাদের লম্বা চুল কেটে ছোট করে দেয়া হতো। বলা হয় লম্বা চুলের অধিকারিণী গুণবতী সৌভাগ্যবতী এবং স্বাধীনচেতা হয়।

ছোট চুল:-

ছোট চুলের মেয়েরা সবার থেকে একটু অন্যরকম হয় এর আর্থিক দিক থেকে স্বাধীন হতে পছন্দ করে এদের মধ্যে একটি শৈল্পিক সত্তা থাকে।

ঢেউ খেলানো চুল:-

ঢেউ খেলানো চুলের মেয়েদের একটি আলাদা মাধুর্য আছে । এরা উন্নত মানসিকতার হয় । আবেগকে খুব একটা প্রশ্রয় দেয় না।

গোলাকার চুল:-

এই ধরনের মেয়েরা একটু বেশি বুদ্ধিমতি হয়।

সোজা চুল:-

চুল সোজা এখন সবথেকে বেশি চলছে ফ্যাশনে। তবে স্বাভাবিক নিয়মে যাদের চুল সোজা তারা সহজ সরল মনের হয়।

কোকড়ানো চুল:-

এই ধরনের চুল যেসব মেয়েদের আছে তারা খুব চটপটে হয় এবং আবেগপ্রবন হয়।

মোটা ঘন চুল:-

এই ধরনের চুলের নারীরা অনেক বেশি সংসারী হয় এবং এরা স্বামীকে নিজের হাতের মুঠোয় রাখতে পারেন।