স্বাধীনতা দিবসের দিন থেকেই মেয়েদের জন্য খুলে গেল আর্মি স্কুল এর দরজা, থাকল না কোন ভেদাভেদ ঘোষণা নমোর

স্বাধীন ভারতের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের দিনে লালকেল্লায় দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একাধিক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন। তার মধ্যে অন্যতম হল আর্মি স্কুল এর দরজা এবার থেকে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েদের জন্য খুলে গেলো আর্মি স্কুল। অর্থাৎ এবার থেকে ছেলেদের সাথেই মেয়েরাও পড়তে পারবেন আর্মি স্কুলে, এমনই ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন ‘দেশের সমস্ত সৈনিক স্কুলগুলিতে এবার থেকে মেয়েদের জন্য পড়াশোনা করার সুবিধা দেওয়া হবে।

জাতীয় নিরাপত্তার পাশাপাশি পরিবেশগত নিরাপত্তার প্রয়োজন রয়েছে তাই এবার থেকে আর্মি স্কুলে মেয়েরাও পড়তে পারবেন। এতদিন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে লক্ষ লক্ষ মেয়েদের অনুরোধ এসেছিল ,তাদের স্বপ্ন পূরণ করতেই এমন পদক্ষেপ নমোর। লালকেল্লায় দাঁড়িয়ে স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী আরও জানান ‘ভবিষ্যৎবাণী করতে না পারলেও কর্ম ফলে বিশ্বাসী আমি রয়েছে দেশের যুবসমাজ, মহিলা ও কৃষকদের উপর। নিজেদের লক্ষ্যকে এরা একদিন ঠিক পুরন করবেই।

স্বাধীনতার ১০০ বছর পূর্তিতে তখন প্রধানমন্ত্রীর আসনে যেই বসে থাকুক না কেন সেদিন আজকে নেওয়া সিদ্ধান্তের সিদ্ধিলাভ করতে পারবেন। তিনি ভারত নিজের স্বপ্ন পূরণ করবে’। প্রসঙ্গত এতদিন যাবৎ আর্মি স্কুল এর দরজা কেবলমাত্র ছেলেদের জন্যই খোলা থাকত সেখানে শুধু মাত্র ছেলেরাই পড়াশোনা করতে পারতো। আর্মি স্কুলে ভর্তি হতে গেলে ষষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তি হতে হতো।

বয়স সীমা ছিল ১০ থেকে ১১ বছর যেখানে নবম শ্রেণীতে ভর্তি হতে গেলে বয়স সীমা ছিল ১৩ থেকে ১৪ বছর। এবার থেকে সেই নিয়মের আমূল পরিবর্তন আনতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কোনরকম ভেদাভেদ না রেখে ছেলে ও মেয়ে উভয়ের জন্যই সেনা স্কুলের দরজা খুলে দিয়ে, লালকেল্লায় দাঁড়িয়ে স্বাধীনতা দিবসের দিন এক অভাবনীয় পদক্ষেপ নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।