সামনে এল অযোধ্যায় মসজিদের নকশা, রয়েছে হাসপাতাল-গবেষণা কেন্দ্র দেখুন সেই ছবি

গত বছর সুপ্রিম কোর্ট রায় ঘোষণা করেছিল, অযোধ্যায় একটি মসজিদ নির্মাণ করতে হবে৷ যার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল ট্রাস্টকে।গত বছরের ৯ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্ট সুন্নি ওয়াক্ফ বোর্ডকে বিকল্প পাঁচ একর জমি দেওয়ার জন্য কেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছে। এবার অযোধ্যার সোহাভাল তহসিলের ধাননিপুর গ্রামে ৫ একর জমিতে প্রস্তাবিত মসজিদের ছবি প্রকাশ পেল৷

 

২০২১ এর শুরুর দিকে মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হবে। মসজিদের পাশে একটি হাসপাতালও থাকবে। ইন্দো ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট জানিয়েছে, মসজিদের নাম এখনও ঠিক হয়নি। তবে কোনও সম্রাট বা রাজার নামে মসজিদের নামকরণ হবে না জানিয়েছে ট্রাস্ট৷

 

মাসিক পেনশন ৫০০০ টাকা, ১৮ থেকে ৪০ বছরের যে কোন ভারতীয় করতে পারবেন আবেদন

ট্রাস্ট বিশ্বজুড়ে বেশ কয়েকটি মসজিদের নকশা দেখায়। বাগান জুড়ে একটি বিশাল কাচের গম্বুজ রয়েছে। মসজিদের পিছনে হাসপাতালের নকশা করা হয়েছে৷ মসজিদ কমপ্লেক্সের মধ্যে মাল্টি স্পেশালিটি হাসপাতাল, কমিউনিটি কিচেন এবং লাইব্রেরি থাকবে। মসজিদের কাঠামো হবে গোলাকার। একসঙ্গে ২ হাজার জন নামাজ পড়তে পারবে জানিয়েছেন মসজিদের প্রধান স্থপতি, অধ্যাপক এস এম আখতার।

জানা যাচ্ছে, নতুন মসজিদ বাবরি মসজিদের চেয়ে বড় হবে। আখতার বলেন, এই কমপ্লেক্সের মূল আকর্ষণ হবে হাসপাতাল। মসজিদের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে ক্যালিগ্রাফি এবং ইসলামের প্রতীক দিয়ে সাজানো হবে হাসপাতাল। মিশনারিদের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে। ৩০০ শয্যা থাকবে৷


ইন্দো-ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি আথার হুসেন জানিয়েছেন, ২৬ জানুয়ারি থেকে মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু হওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও এত কম সময়ে মানচিত্র অনুমোদন হওয়ার সম্ভাবনা কম তাই আপাতত শুধু ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হবে।