ব্যাঙ্কের সুরক্ষার অভাবে টাকা জালিয়াতি হলে গ্রাহককে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, বড়ো সিদ্ধান্ত জাতীয় গ্রাহক কমিশনের

যদি কোন ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট থেকে হ্যাকাররা টাকা চুরি করে, তাহলে তার দায় গ্রাহকের ঘাড়ে পড়বে না। এই ধরনের প্রতারণার ঘটনায় যাবতীয় দায়ভার ব্যাংকের। ক্রেডিট কার্ড জালিয়াতির মামলায় এমনই নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় গ্রাহক বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন। অভিযোগ জানিয়েছিলেন, যে কোন হ্যাকার তার একাউন্ট থেকে টাকা চুরি করেছে, হ্যাকিংয়ের জন্য ব্যাংকের বৈদ্যুতিন ব্যাংকিং ব্যবস্থার ফাঁকফোকরগুলিকেও তিনি দায়ী করেছিলেন। এ বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে জানিয়েছে, ব্যাংক এমন কোনো প্রমাণ দিতে পারেনি যেখান থেকে বোঝা যায় যে ভুক্তভোগীর ক্রেডিট কার্ড চুরি হয়েছিল।

আজকের ডিজিটাল দুনিয়ায় হ্যাকিং একটি অত্যন্ত প্রচলিত সাইবার ক্রাইম। এই মামলায় ক্ষতিগ্রস্তকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত৷ আমেরিকায় বসবাসকারী এক ব্যক্তি জানান, মহারাষ্ট্রে বসবাসকারী তার বাবার অ্যাঙ্কাউণ্ট থেকে ৩০০ ডলার কেটে নেওয়া হয়৷ 2008 এর ডিসেম্বরে তার বাবার কাছ থেকে তিনশ দশ ডলার কেটে নেওয়া হয়। এরপর 14 থেকে কুড়ি ডিসেম্বরের মধ্যে তার অ্যাকাউন্ট থেকে 6 হাজার ডলার তুলে নেওয়া হয়।

Advertisements

এ ঘটনায় অ্যাকাউন্টটি হ্যাক করার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। লস অ্যাঞ্জেলসে বসবাসাকারী ভারতীয় মহারাষ্ট্রের জেলা ক্রেতা সুরক্ষা অভিযোগ জানিয়েছিলেন। ভুক্তভোগী গ্রাহক ক্ষতিপূরণ চেয়ে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে জাতীয় কমিশনের দ্বারস্থ হয় ব্যাংকটি। আর্জি প্রত্যাখ্যান করেছে কমিশন এবং অভিযুক্ত মহিলাকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

Advertisements

ভারতের নেতৃত্ব ও ভ্যাকসিন উৎপাদন ক্ষমতায় মুগ্ধ বিল গেটস, টুইট করে প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রীর

ব্যাঙ্ক জানিয়েছে , ক্ষতিগ্রস্ত মহিলাকে 12% হারে সুদ সহ 6110 ডলার ফেরত দেওয়া হবে। 2017 সালের রিপোর্টে রিজার্ভ ব্যাংক জানিয়ে দেয় প্রতারণার ঘটনাটি যদি ব্যাংকের কাছে থাকে হয়, তাহলে গ্রাহকের চিন্তার কোন কারণ নেই। সম্পূর্ণ ক্ষতি ব্যাঙ্ক বহন করবে। কিন্তু যদি গ্রাহক অবহেলার কারণে জালিয়াতি হয়, তবে গ্রাহককে ক্ষতির পরিমাণ বহন করতে হবে। আর যদি কখনো এমন পরিস্থিতি তৈরি হয় যেখানে ব্যাংক এবং গ্রাহক জালিয়াতির জন্য কেউ দায়ী নয় সে ক্ষেত্রে গ্রাহক যদি তিনটি কাজের দিনের মধ্যেই জালিয়াতির অভিযোগ দায়ের করেন তাহলে তিনি দায়ী হবেন না।