ইউনিট প্রতি খরচ মাত্র ১৫ টাকা! একবার চার্জে চলবে ১০০ থেকে ৫০০ কিলোমিটার ইলেকট্রিক কার, বিস্তারিত জানতে

দিনদিন আকাশ ছুতে চলেছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠছে তেলের দাম যোগাতে। বর্তমানে পেট্রোল-ডিজেলের দাম এতটাই বেড়ে গেছে যে সিএনজি, ইলেকট্রিক গাড়ির দিকে ঝুঁকছে দেশবাসী ।দেশে মাঝে মাঝে আত্মপ্রকাশ করছে ইলেকট্রিকগাড়ির। এর পিছনে একটাই কারণ সরকার ভর্তুকি দিচ্ছে এতে। তবে আপনি কি জানেন একবার ইলেকট্রিক গাড়ি স্টার্ট করতে পারি ইউনিট কত খরচ পরে।

তথ্য সূত্র মতে ইলেকট্রিক গাড়ি চার্চের ক্ষেত্রেই মুম্বাই থেকে কম খরচ পড়ে দিল্লিতে। যেখানে মুম্বাইতে একবার গাড়ি চার্জ করতে প্রতি ইউনিট খরচ পড়ে ১৫ টাকা মতো । সেখানে দিল্লিতে তা অনেকটাই সস্তা । এক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে দিল্লিতে ইউনিট ভর্তি খরচ পড়ছে ৪.৫টাকা সেখানে হাই টেনশন ভেহিকেলসখরচ পড়ে ৫টাকা। একটি পুরো গাড়ি চার্জ করতে খরচ পড়ে কুড়ি থেকে ত্রিশ টাকা । তাই হিসেব মতো দিল্লিতে এই পুরো খরচটি এসে দাঁড়ায় ১২০থেকে ১৫০ টাকায়।অন্যদিকে হিসেব মতো মুম্বাই এসে খরচ দাঁড়ায় ২০০থেকে ৪০০ টাকা।

এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক গাড়ি চার্জ করতে ঠিক কতটা সময় লাগে। মূলত দুই ধরনের পদ্ধতিতে ইলেকট্রিক গাড়ি চার্জ করতে পারা যায়। চার্জিং এর ক্ষেত্রে দুই ধরনের অপশন পাওয়া যায় ফাস্ট চার্জিং অপশন এবং সাধারন চার্জিং অপশন। একটি গাড়িকে দ্রুত চার্জ করতে সময় লাগে ৬০ থেকে ১১০মিনিট । সেখানে সেই একই গাড়িকে সাধারণ চার্জিং অপশনে চার্জ করতে গেলে সময় লেগে যায় ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা ,যা অনেকটাই বেশি।

একটি গাড়ির ইঞ্জিনের ওপর নির্ভর করে একবার গাড়িটি চার্জ হলে তারা ঠিক কত কিলোমিটার যেতে পারবে । সাধারণ হিসেব মতে একটি গাড়ি ১৫kmh এর ব্যাটারি পুরো চার্জে ১০০ কিলোমিটার যেতে পারে । ব্যাটারির ওপর নির্ভর করবে গাড়িটি ঠিক কতটা যেতে পারবে । যেমন টেলসা কোম্পানির গাড়ি একবার চার্চে ৫০০ কিলোমিটার অব্দি যেতে পারে। সাধারণভাবে এত বেশি কিলোমিটার রান করতে পারে না অন্য সমস্ত গাড়ি গুলি।

ভারতের প্রথম ইলেকট্রিক গাড়ি হিসাবে আসে মারুতি । এরপর ভারতে ইলেকট্রিক গাড়ি আসার প্রচলন শুরু হয়েছে। সম্প্রতি টাটা আনছে ইভি মডেল। এই মডেলটি ছাড়াও একাধিক গাড়ি ইলেকট্রিক গাড়ি লঞ্চ করছে টাটা । টাটা দের এই ইলেকট্রিক গাড়ি লিস্টে নাম রয়েছে টাটা নেক্সন ইভি এবং টিগার।