রাজ্যের মানুষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়ে দাগি আসামিদের বাঁচাতে ব্যস্ত মুখ্যমন্ত্রী! বিস্ফোরক মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক ডেকেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ এই ভার্চুয়াল বৈঠকের পরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর  বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  (mamata banerjee)। বৈঠকে আমন্ত্রণ জানালেও তাকে  কথা বলতে দেওয়া হয়নি এই  অভিযোগ তুললেন।  অন্যদিকে ভার্চুয়াল বৈঠকে  মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে  বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (dilip ghosh) আক্রমণ করলেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর এতদিনের সব অভিযোগ এর জবাব দিলেন দিলীপ ঘোষ৷ নারদ মামলায় সিবিআই দফতরে যাওয়া, করোনা  ভ্যাকসিনের অভাব এই সব বিষয় প্রধানমন্ত্রীকে একাধিকবার তোপ দেগেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই সবকিছুর পাল্টা জবাব দিলেন দিলীপ ঘোষ।

আপাতত বাতিল হচ্ছে না মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা, কবে হবে পরীক্ষা বিস্তারিত জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

লকডাউনে  জমায়েত এড়াতে ভার্চুয়াল বৈঠকেই দিলিপ ঘোষ কথার মাধ্যমে এক হাত নিলেন  মুখ্যমন্ত্রীকে।সোমবার  রাজ্যের চার হেভিওয়েট নেতা মন্ত্রীদের  গ্রেফতার করেছে  সিবিআই।  এরপর নিজাম প্যালেসে হাজির হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । একটানা ৬ ঘণ্টা সেখানেই থাকেন। এমনকি তাঁকেও গ্রেফতার করা হোক এই কথাও বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।   এবিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘বর্তমান সময়ে দাগী নেতাদের বাঁচাতে ব্যস্ত মুখ্যমন্ত্রী, তাই মানুষকে ভগবানের হাতে ছেড়ে দিয়েছেন’।


প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকের পর মোদীজিকে আক্রমণ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  তার পাল্টা জবাব দেন দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষ  প্রশ্ন তোলেন, ‘পূর্বে করোনা সংক্রান্ত একাধিক বৈঠক কেন এড়িয়ে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী? ‘

করোনাকে যথেষ্ট গুরুত্ব কখনও দেননি মুখ্যমন্ত্রী- এই অভিযোগ করেন দিলীপ ঘোষ।তিনি  বলেন, ‘ভোট শেষ হতেই লকডাউন করা উচিত ছিল। কিন্তু তা না করে এক বিশেষ সম্প্রদায়কে তুষ্ট রাখতে, দেরি করে লকডাউন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেইসাথে দিলীপ ঘোষ বলেন,  এবার করোনা চিকিৎসার জন্য কোভিড বেড কমিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।