এই মুহূর্তের সবচেয়ে বড় খবর! 21 ফেব্রুয়ারি থেকে অযোধ্যা শুরু হতে চলেছে রাম মন্দির নির্মাণের কার্য ঘোষণা করলেন ধর্ম সংসদ।

রাম মন্দির নির্মাণ কবে চালু হবে তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে আলোচনা চলছিল। রাম মন্দির নির্মাণ করাকে কেন্দ্র করে অনেক কটাক্ষ করেছে বিরোধীরা।রাম মন্দির নির্মাণ কার্যের অনুমতি নিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে নানা দিক থেকে বাধা পেতে হয়। এমনকি এখনও পর্যন্ত এই মামলার রায় সুপ্রিম কোর্টে ঝুলছে। বর্তমানে আদালতের রায়ের উপর পুরোপুরি নির্ভর করছে রাম মন্দির এবং বাবরি মসজিদ মামলার ভবিষ্যৎ কোন দিকে যাবে। এই টানাপোড়েনের মাঝখানে ধর্ম সংসদ ঘোষণা করল আগামী একুশে ফেব্রুয়ারি থেকে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু হয়ে যাবে। কুম্ভ মেলা উপলক্ষে এদিন প্রয়াগরাজে ধর্মীয় সদস্যরা এক সঙ্গে মিলিত হন।

ওখানে উপস্থিত সকলেই ঠিক করেন, সুপ্রিম কোর্টের নিয়ম ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কে সম্মান করলেও এখন অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ করার সময় চলে এসেছে। ওই সংগঠনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে,তাঁরা চারটি পাথর বয়ে নিয়ে গিয়ে অযোধ্যায় ভিত গড়বেন এবং রাম মন্দিরের নির্মাণকার্য শুরু করবেন। সংগঠনের তরফ থেকে আরও বলা হয় যে, মন্দির তৈরি করতে সময় লাগবে কিন্তু এখন থেকে যদি না তৈরি করা হয় তাহলে অযোধ্যায় রাম মন্দির কোনদিন হবে না। মঙ্গলবার কেন্দ্রকে সুপ্রিম কোর্ট জানায়,বিতর্কিত এলাকা বাদে যে 67 একর জায়গা রয়েছে তার আসল মালিক রাম জন্মভূমি ন্যাসের হাতে ফিরিয়ে দেওয়া হোক। এর মধ্যে মাত্র 2.77 একর জায়গা বিতর্কিত রয়েছে। এই এলাকা বাদে বাকি এলাকা ফেরত দেওয়ার জন্য দাবি করা হয়েছে।

এর আগে হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল যে, 2025 সালের মধ্যে রাম মন্দির নির্মাণ কাজ শুরু হয়ে যাবে। এরপর কদিন আগেই বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফ থেকে জানানো হয়, এখনও মন্দির তৈরির কাছ শুরু না হলেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বা তার সরকারের প্রতি তাদের আস্থা রয়েছে। এর কারন হিন্দুদের জন্য যদি কেউ চিন্তা করে সেটা একমাত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, আর কেও নয় ।