বড় সাফল্য মোদী সরকারের! লন্ডন থেকে দেশে প্রত্যর্পণ করা হচ্ছে বিজয় মালিয়াকে।

এবার ভারত সরকার বিজয় মালিয়া কে দেশে ফেরানো নিয়ে একটা বড়স্বর সাফল্য পেল। সোমবার লন্ডন কোর্টে তোলা হয় বিজয় মালিয়া কে সেখানে তারা জানিয়ে দেন যে ভারত সরকার বিজয় মালিয়ার বিপক্ষে যে সমস্ত প্রমান গুলি দিয়েছিল সেগুলি সত্য প্রমাণিত হয়েছে। এর ফলে তাঁরা সহজেই জানিয়ে দেন যে এবার ভারত সরকার চাইলেই বিজয় মালিয়া কে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারে। এবং তাতে যদি বিজয় মালিয়ার কোনো রকম আপত্তি থাকে তাহলে ১৪ দিনের মধ্যে তিনি অন্য আদালতে যেতে পারেন। এবার সম্পূর্ণ সিদ্ধান্ত নির্ভর করছে ভারতের মন্ত্রী মহলের উপর।ব্রিটেন কোর্টের এই ফাইসালা জানার পর ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানিয়েছেন যে, ব্রিটেনের কোর্টের ফাইসালা কে আমরা সম্মান জানায়। আমরা বরাবরই আইনের ওপর ভরসা রেখে ছিলাম এবং আইনের রায় আমরা মেনে নিয়েছি।

তার ফলে আমরা এতদিনে একটা সুন্দর বিচার পেলাম। আজ সমস্ত ভারতবাসীর অন্যতম আনন্দের দিন। কারণ ভারত কে ঠকানো কোন ব্যক্তি কোন দিন ছাড় পাবেন না আর আজ সেটাই হল। বিজয় মালিয়া অবশেষে ধরা পরল এবং সে আস্তে চলেছে ভারতের হাতে।এই ফলাফল ঘোষণার আগে বিজয় মালিয়া সেখানকার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন।এবং জানিয়েছিলেন ভারতবর্ষে থেকে লোন নিয়েছি, আমি কোন রকম টাকা চুরি করে পালিয়ে আসে নি। তাই কোর্ট যে সিদ্ধান্ত নিক না কেন আমি তাতে পূর্ণ সমর্থন করবো। এবং আমাকে যদি ভারতবর্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাহলে আমি যেতে রাজি।

বিজয় মালিয়ার এই শুনানির সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ভারতবর্ষের সিবিআই দপ্তরের প্রধান এবং ইডির সচিব। তারা দুজনেই বিজয় মালিয়ার সমস্ত অর্থ কেলেঙ্কারি ব্যাপার গুলি আদালতে খুলে বলেন। এবং তারা জানান যে বিজয় মালিয়া ভারতবর্ষ থেকে ৯ হাজার কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে এসেছেন এবং গত বছর তাকে গ্রেপ্তার করে লন্ডনের পুলিশ।

এই মামলাটি বেশ কয়েক মাস ধরেই চলছে। কিন্তু ইংল্যান্ডের সরকার কিছুতেই তাকে ভারতের হাতে তুলে দিতে রাজি হচ্ছিলেন না। শেষ পর্যন্ত ভারত সরকার ক্রমাগত চাপ সৃষ্টি করে এবং সেই চাপের কাছে মাথা নত করে ব্রিটেন সরকার। এবং ভারত সরকারের দেওয়া সমস্ত নথি সত্য প্রমাণিত হয়েছে। এর ফলে অবশেষে তারা বাধ্য হয়ে বিজয় মালিয়া কে ভারতের হাতে তুলে দিতে রাজি হয়েছেন।

তাকে ভারতে ফিরিয়ে এনে তার ব্যাপারে যে ঠিক কী কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, এবং তার ব্যাপারে যে কোন কোন মামলা গুলি রজু করা হবে সেই ব্যাপারে এখনো পরিষ্কার ভাবে জানানো হয়নি ভারত সরকারের তরফ থেকে। তবে এটুকু বলা যায় যে বিজয় মালিয়া তার কুকর্মের উপযুক্ত শাস্তি এবার পেতে চলেছে।
এই মুহূর্তের এই গুরুত্বপূর্ণ খবর টি সবার কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য আপনারা আপনাদের বন্ধু, পরিবারের সকলের সাথে শেয়ার করুন।
#অগ্নিপুত্র