বড় খবরঃ 11 টি চীনা কোম্পানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল আমেরিকা

শুধু ভারতেই নয় আমেরিকারও এখন প্রধান শত্রু চীন। ভারত আর চীনের মধ্যে উত্তেজনা যেমন বাড়ছে তেমনি আমেরিকা এবং চীনের মধ্যে উত্তেজনা চরমে পৌঁছাচ্ছে দিনের পর দিন। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইতিমধ্যেই বহুবার চীনকে শায়েস্তা করার হুমকিও দিয়েছে। করোনা ভাইরাস এর জন্য সারা বিশ্বজুড়ে যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে তার জন্য তিনি চীনকে দায়ী করেছেন। এছাড়াও চীনের বিরুদ্ধে বদলা দেওয়ার জন্য একাধিক পদক্ষেপ নিচ্ছে আমেরিকা। এবার সম্প্রতি 11 টি চীনা কোম্পানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

জানা গিয়েছে যে, উইঘুর সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ ওঠে। আর তার জেরেই 11 টি চিনা কোম্পানিকে তালিকাভুক্ত করা হলো ট্রাম্প প্রশাসনের তরফ থেকে। গত সোমবার আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে এই ঘোষণা করা হয়। বাণিজ্যিক মন্ত্রণালয় তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, দীর্ঘদিন ধরে চীন পশ্চিমাঞ্চলের উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর অত্যাচার চালাত। এছাড়াও মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছিল চীন।

এই বিষয়ে আমেরিকা ছাড়াও আরো অন্যান্য পার্শ্ববর্তী দেশগুলো অভিযোগ তুলেছিল চীনের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি 10 জুলাই চীনে শক্তিশালী পলিটব্যুরোর এক সদস্য সহ মোট চার কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র। এনাদের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনা হয় আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের তরফ থেকে। এই অভিযোগে জানানো হয়েছে যে, উইঘুর সম্প্রদায় পাওয়ার ও অন্যান্য সংখ্যালঘু জাতি দের ওপর নজরদারি, বন্দী করে রাখা এমন কী বলপূর্বক দীক্ষাদান এর মতন অভিযোগ উঠেছে এসেছে।

তাই এ বিষয়ে আমেরিকা চুপ করে বসে না থেকে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে। চীনের এই 11 টি কোম্পানির নাম হল – চ্যাংজি এসকুয়েল, নানজিং সিনার্জি টেক্সটাইল, হেফেই মেইলিং, হেতিয়ান তাইদা অ্যাপারেল, হেতিয়ান হাওলিন হেয়ার অ্যাক্সেসোরিজ, কেটিকে গ্রুপ, হেফেই বিটল্যান্ড ইনফরফেশন, ন্যানচ্যাং ও-ফিল্ম টেক, তানিউয়ান টেকনোলজি। এ বিষয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পে ও মন্তব্য করেন। তিনি চীনের এই মানবাধিকার লঙ্ঘনকে তীব্র নিন্দা জানাই। এমনকি তিনি এই ঘটনাকে ‘শতাব্দী কলঙ্ক’ বলে উল্লেখ করেছেন। অপরদিকে আমেরিকার এই সমস্ত অভিযোগ প্রথম থেকে অস্বীকার করে আসছে চীন।

More Stories
ভারী জনসভায় অনুব্রতকে থমকে দিয়ে প্রশ্ন এক যুবকের। প্রশ্ন শুনে হকচকিয়ে গেলেন অনুব্রত নিজেই।