ভোটের আগেই সরকারি কর্মচারীদের জন্য বড় ঘোষণা মোদি সরকারের প্রত্যেকে পাবেন 10,000 টাকা

সামনেই আসতে চলেছে হোলি উৎসব। আর এই হোলি উৎসবে কেন্দ্রীয় সরকার তার কর্মচারীদের এক বড় ধরনের উপহার দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে। হোলি উপলক্ষে প্রতিটি কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের ১০ হাজার টাকা করে উপহার দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

 

অগ্রিম উপহারের সিদ্ধান্তটি কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক কয়েকদিন আগে ঘোষিত হওয়া সপ্তম বেতন কমিশনের ( 7th Pay Commission ) একটি অংশ বিশেষ। উৎসব ভাতা নামে কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রকল্পের আওতায় হোলি উৎসবের জন্য উপহারটি একদম সুদ মুক্ত বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ১০ টি সহজ কিস্তিতে ওই টাকাটি পরিশোধ করা যাবে। তবে এক্ষেত্রে কর্মীদের অবশ্যই Prepaid RuPay Card থাকতে হবে।

এই উপহারের সিদ্ধান্তটি প্রথম সপ্তম বেতন কমিশনের অন্তর্ভুক্ত ছিল না পরে তা করা হয়। এই সিদ্ধান্তটি প্রথমেই ষষ্ঠ বেতন কমিশনের অন্তর্ভুক্ত ছিল তখন সেই টাকার পরিমাণ ছিল ৫ হাজার ৪০০ টাকা। তখন এই টাকাটি পাওয়ার যোগ্য ছিল কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন নন-গেজেটেড কর্মীরা। পরে এই সিদ্ধান্তটি সপ্তম বেতন কমিশনের আওতায় আনা হয় এবং এই টাকার পরিমাণ বাড়ানোর সাথে এই টাকাকে সকল কর্মীর জন্য গ্রহণযোগ্য করে তোলা হয়।

 

অর্থ বিভাগের অধিদপ্তর একটি স্বারকলিপির মাধ্যমে জানিয়েছে যে ২০২১ সালের ৩১ মার্চের আগে এই টাকা ব্যয় করতে হবে। অগ্রিম বছরে কেবল মাত্র একবারই এই টাকাটি দেওয়া হবে। যেসকল কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা আগে এই অর্থ যদি না নিয়ে থাকেন তবে তিনি হোলি উৎসবের প্রকল্পের আওতায় ওই টাকা নিতে পারবেন।

কেন্দ্রীয় সরকারের পাশাপাশি রাজ্য সরকারও তাদের কর্মীদের জন্য উৎসব ভাতা দেওয়ার ব্যবস্থা করবে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ব্যাংকে টাকা চলে যাবে তারা নির্দ্বিধায় এই টাকা খরচ করতে পারবে।