মাত্র ১৫ বছর বয়সেই হয়ে গিয়েছিলেন লাখপতি, তারপর শুরু করেন নিজের কোম্পানি, আজ প্রতি মাসে আয় করছেন লাখ লাখ টাকা

বর্তমান সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহার দ্রুত বাড়ছে। এটি অনেকের উপার্জনের মাধ্যমও হয়ে উঠেছে। দক্ষতা থাকলে অল্প বয়সেও সফলতা পাওয়া যায়। গুজরাটের মোহিত চুরিওয়াল তাঁর দক্ষতা দেখিয়েছেন এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাফল্য পেয়েছেন। ১৫ বছর বয়সে ইনস্টাগ্রাম থেকে কোটিপতি হয়ে, ১৮ বছর বয়সে নিজের কোম্পানী প্রতিষ্ঠা করেছেন। আসুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে সাফল্য পেলেন মোহিত চুরিওয়াল।


মোহিত গুজরাটের সুরাতের বাসিন্দা। তিনি যখন স্কুলে পড়তেন অর্থাৎ তাঁর যখন ১৫ বছর বয়সী ছিল, তখন মোহিত বিখ্যাত হওয়ার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্য নিয়েছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়া তখন নতুন ছিল। মোহিত ইনস্টাগ্রামে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করেছিলেন এবং তা বিক্রি করেছিলেন ৭ লাখ টাকায়। এরপরেও মোহিত থেমে থাকেননি, আরো এগিয়ে যেতে থাকেন। মোহিতের যাত্রার শুরুটা সহজ ছিল না।

তিনি প্রথমে ইউটিউবে তাঁর চ্যানেল তৈরি করেন, কিন্তু সেখানে তিনি সফল হতে পারেননি। এরপর একটি সোশ্যাল পেজ তৈরি করেন, কিন্তু তা হ্যাক হয়ে গেছিল। তারপরেও মোহিত হাল ছাড়েননি, আরো কঠোর পরিশ্রম করতে থাকেন। মোহিত যখন দ্বাদশ শ্রেণীতে অধ্যয়নরত ছিলেন, সেই সময়ে মোহিত তাঁর ইনস্টাগ্রাম পেজটি ৭ লক্ষ টাকায় বিক্রি করেছিলেন। তারপরে তিনি নিজের কোম্পানী শুরু করার পরিকল্পনা করেছিলেন।


এর জন্য মোহিতের প্রয়োজন ছিল ৭ লাখেরও বেশি টাকা। তাঁর কোম্পানী শুরু করার জন্য তিনি অনেক নামী কোম্পানীর সাথে কাজ শুরু করেন। মোহিত কঠোর পরিশ্রম করে সাফল্য অর্জন করেন। ১৮ বছর বয়সে মোহিত তাঁর কোম্পানী শুরু করেছিলেন। সংস্থাটি গঠনের সাথে সাথেই তিনি প্রতি মাসে ৩ লাখ টাকার বেশি আয় করতে শুরু করেন। এরপর আরেকটি কোম্পানী শুরু করেন। মোহিত তাঁর পরিবারের কাছ থেকে কোনো আর্থিক সাহায্য নেননি। মোহিত অল্প বয়সেই কোম্পানীটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বর্তমান সময়ে তিনি অল্প বয়সেই কোটি টাকার সম্পত্তির মালিক হয়েছেন।