ডিজিটাল স্ট্রাইকে ধরাশায়ী চীনের গেমিং মার্কেট, PUBG ব্যান করায় দু’দিনেই চিনের লোকসান 34 বিলিয়ন ডলার

গত বুধবার দিন চীনের বিরুদ্ধে সম্পন্ন করা হয়েছে তৃতীয় ডিজিটাল স্ট্রাইক। যেখানে আবারো ভারতের মতো দেশে নিষিদ্ধ করা হয়েছে PUBG সহ আরও 118 টি চীনা অ্যাপ্লিকেশন। এর আগে গত দুবার সম্পন্ন করা হয়েছিল ডিজিটাল স্ট্রাইক যেখানে ভারত সরকার নিষিদ্ধ করেছিল tiktok,UC browser, we chat এর মত 150 টি জনপ্রিয় চীনা অ্যাপ।আর এবার তৃতীয় ধাপে যে ডিজিটাল স্ট্রাইকটি করা হয়েছে তার দরুণ ব্যান করা হয়েছে অনলাইন জনপ্রিয় মাল্টিপ্লেয়ার গেমিং ব্যাটেল PUBG, আর এটি করার ফলেই প্রথম দিনেই চীনের ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় 1400 কোটি ডলার এবং প্রথম দিনেই মার্কেট শেয়ারের দর পড়েছে 2%।

 

আর দ্বিতীয় দিন শেয়ার দর পড়েছে 3 শতাংশ। আর এই গত দু’দিনে সব মিলিয়ে PUBG মালিক চীনের টেনশন বাজারমূল্য প্রায় 34 মিলিয়ন ডলার পড়ে গিয়েছে।প্রসঙ্গত গোটা বিশ্বে জুড়ে যে পরিমাণে PUBG চলতো তার 24 শতাংশ ব্যবহারকারী ছিল ভারতের, ভারতে প্রায় 3 কোটি 30 লাখ জন ব্যবহার করতেন PUBG,তবে এবার থেকে এই পরিমাণ ট্রাফিক কমে যাওয়ার ফলে বলা যেতে পারে বিরাট পরিমাণে ধাক্কা খেয়েছে গেম প্রস্তুতকারী সংস্থা টেনশন। ভারত সরকারের তরফ থেকে এদেশে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের, ধারা 69 A এ এর ​​অধীনে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এই অ্যাপগুলি।

যেখানে এই অ্যাপ গুলি ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা,প্রতিরক্ষা, ও নাগরিকদের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বিপদজনক তাই এই অ্যাপগুলি ব্যান করা হয়েছে।অন্যদিকে এ বিষয়ে এই গেম প্রস্তুতকারী সংস্থা টেনশন এর তরফ থেকে যে বিবৃতি বেরিয়ে এসেছে সেখানে তারা জানিয়েছেন এক্ষেত্রে আমরা ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা এবং ডাটা সুরক্ষার ক্ষেত্রে গুরুত্ব দিয়ে থাকি, আমরা ডেটা সুরক্ষা আইন মেনে চলি আমরা ভারতের কর্তৃপক্ষের ব্যবহারকারীর ডেটা সুরক্ষার ক্ষেত্রে আমাদের নীতি সম্পর্কে অবহিত করতে চাই। আশা করছি বিষয়টি পুনরায় বিবেচনা করে দেখা হবে এবং ভারত সরকারের সঙ্গে আমরা এ বিষয়ে কথা বলার প্রত্যাশায় রয়েছি। এদিকে ভারত সরকারের এরকম এক সিদ্ধান্তের জেরে প্রতিবাদী হয়ে উঠেছে চীনের বাণিজ্যিক মহল তাদের দাবি ভারতের এই পদক্ষেপ চীনা বিনিয়োগ কারীদের স্বার্থে আঘাত এনেছে, তাই ভারতকে ভুল শুধরে নেবার কথা জানিয়েছে তারা।

https://twitter.com/seriousfunnyguy/status/1301876538237878272?s=19