আম্বানি নয় টাটা গোষ্ঠীর হাতে যেতে চলেছে বিসলারি, ৭০০০ কোটিতে হল চুক্তি ফাইনাল!

ধীরে ধীরে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করতে শুরু করেছে টাটা গোষ্ঠী। সম্প্রতি কিছুদিন আগেই বিমান কেনার মত ঘটনা সামনে এসেছে যে কারণে অসামরিক বিমান পরিবহনের ক্ষেত্রেও এসেছে বিরাট পরিবর্তন। এয়ার ইন্ডিয়া ভিস্তারা সহ এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস ও এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়া এই চারটি নিয়ে এয়ার ইন্ডিয়া লিমিটেডের পরিকল্পনা শুরু করেছেন টাটা গোষ্ঠী। এমনকি এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে আগামী এক বছরের মধ্যেই এমনই সম্ভাবনা রয়েছে।

সম্প্রতি শোনা যাচ্ছে বিসেলারির মালিক রমেশ চৌহান বিসেলারি কোম্পানি বিক্রয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাও মাত্র ৭০০০ কোটি টাকার বিনিময়ে সেই কোম্পানি কিনতে চলেছে টাটা গোষ্ঠী। টাটা কনজিউমার প্রোডাক্ট লিমিটেডের কাছে বিক্রি করতে চলেছেন রমেশ চৌহান নিজের বিসেলারি কোম্পানিটি, যেটি একটি বৃহত্তর প্যাকেজ ওয়াটার সংস্থা। ৬০০০ থেকে ৭০০০ কোটি টাকার বিনিময়ে হস্তান্তর হয়ে যাবে কারণ হিসেবে যে তথ্য উঠে আসছে তা বড়ই অদ্ভুত।


শোনা যাচ্ছে রমেশ চৌহানের মেয়ে জয়ন্তীর এই ব্যবসার বিষয়ে কোনো রকম কোনো আগ্রহ নেই। যে কারণে কোম্পানি বেচে দেওয়ার মতো সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রমেশবাবু। তবে কোম্পানি হস্তান্তরের সাথে সাথেই বিসিলারি ম্যানেজমেন্টকে বসিয়ে দেওয়া হবে না বরং চুক্তি অনুযায়ী বিসেলারী আরও দু’বছর তাদের কাজ চালিয়ে যেতে পারবে। কথা বলা যেতে পারে বিমানে কেনার পর এবার আরো একটি বড় পদক্ষেপ নিল টাটা গোষ্ঠী।

ইতিমধ্যেই টাটারও নিজস্ব প্যাকেজ ওয়াটার সংস্থা রয়েছে। তার নাম হিমালয়া ওয়াটার। তাকেও একটি সর্বোচ্চ স্তরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টায় রয়েছেন টাটাগোষ্ঠী অর্থাৎ একের পর এক ব্যবসা নিজের অধীনে এনে একচ্ছত্র নায়ক হয়ে উঠছেন টাটা গোষ্ঠী। ধীরে ধীরে টাটা এমন এক সংস্থার পরিণত হতে চলেছে যেখানে আগামী দিন হয়তো টাটা গোষ্ঠীর সঙ্গে টক্কর দেবার মত কেউ থাকবে না। এমনটাই বিশেষজ্ঞ মহলের মনে হচ্ছে। যেভাবে টাটা নিজের ব্যবসাকে পরিচালনা করছেন তাতে ব্যবসায়িক তুখর বুদ্ধিরই পরিচয় পাওয়া যায়।