দলীয় কার্যালয়ে যুবককে চড় মেরে সমালোচনার সম্মুখীন টালিগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়

রবিবার, ২৮ মার্চ অর্থাৎ দোল পূর্ণিমার দিন রানিকুঠিতে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে একটি যুবকের চড় মেরে বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন ২০২১ এর বিধানসভা ভোটের টালিগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয় (Babul supriyo)। আর এই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে উঠেছে।

 

এবারের বিধানসভা ভোটে অরূপ বিশ্বাসের (Arup Biswas) বিরুদ্ধে টালিগঞ্জে বিজেপি প্রার্থী হয়েছেন বাবুল সুপ্রিয় (Babul supriyo)। তাই এই গায়ক তথা রাজনৈতিক নেতাকে দেখা যাচ্ছে ভোট প্রচারে বেরুতে। গত রবিবার ছিল দোল পূর্ণিমা। সেইল উপলক্ষে তিনি স্ত্রী এবং মেয়েকে নিয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন রানিকুঠিতে। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের সাথে যখন কথা বলছিলেন তখন একটি যুবক এই নেতাকে উদ্দেশ্য করে বলেন,“ছবি তুলে কিছু হবে না। এখানে লড়তে হবে।”

যুবকটিকে বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo) চুপ করতে বলেও যুবকটি চুপ হয়নি তখন যুবকটিকে নিয়ে বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo) তাদের দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে যান এবং সেখানেই যুবকটিকে চড় মারেন।এই চড় মারার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo) যুবকটিকে এমনভাবে চড় মেরেছেন যে কারণে যুবকটির সানগ্লাসটা খুলে পড়ে যায়। এই রাজনৈতিক নেতার রাগের এমন বহিঃপ্রকাশের জন্য সমালোচনার সম্মুখীন হন। নিজের দোষ ঢাকার জন্য বাবুল সুপ্রিয় (Babul supriyo) বলেন যে ঝামেলা করার জন্য তৃণমূলরাই এই সমস্ত ছেলেদের নাকি পাঠিয়েছে। এরপরও তৃণমূলরা আবার লোক পাঠালে এইভাবে নাকি থাপ্পর খাবে।

বাবুল সুপ্রিয়র (Babul Supriyo) কথায় ” তাঁর এই মন্তব্য নিয়েও শুরু হয়ে গিয়েছে বিতর্ক। গোটা ঘটনায় তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের মন্তব্য, “যারা যোগদান মেলা করছে, তাদের মুখে এসব কথা মানায় না। প্রশ্ন হল, কাকে থাপ্পড় মারলেন বিজেপি প্রার্থী? তৃণমূলের বহিরাগত নাকি বিজেপির বিভীষণকে?”