দেশনতুন খবরবিশেষভারতীয় সেনা

এবার কোন প্রকার সার্জিক্যাল স্টাইক করবে না ভারত। নির্ণায়ক যুদ্ধের মাধ্যমে পাকিস্তানকে চার টুকরো করার প্রস্তুতি নিতে চলেছে ভারত।

পুলওমার ঘটনার পর থেকেই অনেকে হয়তো ভাবছেন ভারত হয়তো আরেকবার করতে চলেছে পাকিস্তানের ওপর সার্জিকাল স্ট্রাইক, কিন্তু আপনাদের জানিয়ে দিই আপনারা সম্পূর্ণ ভুল ভাবছেন । কিছুদিন আগে উরি হামলার পর ভারত সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেছিল। আর ইতিমধ্যে পুলওয়ামার হামলার পর থেকেই পাকিস্তানের MFN মর্যাদা কেড়ে নিয়েছে , নিজেদের রাজদূতকে ভারতে ডেকে নিয়েছে, শুধু তাই নয় অন্য দেশের প্রতিনিধিদের সাথে ভারত বৈঠকে বসছে। অর্থাৎ পরিষ্কার হয়ে গেছে যদি সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করার থাকতো তাহলে ভারতকে এত কিছু করতে হত না। ভারত এবার অনেক বড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে যার কার্য ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে।

সরকার ইতিমধ্যেই যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছে তার মধ্যেই পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে যে , এবার পাকিস্তানের ইতিহাস ও ভূগোল বদলে যেতে চলেছে। বিজেপির মন্ত্রী ডক্টর সুব্রামানিয়াম স্বামীর দেশের সমস্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের সাথে তার সুসম্পর্ক রয়েছে এবং তার বার্তা অনেকটাই লক্ষণীয়। ডক্টর সুব্রামানিয়াম এর বার্তা,” পাকিস্তান কে চার টুকরো করার আগে আমেরিকা কে নিজেদের দলে পুরোপুরিভাবে টেনে আনতে হবে। কারণ যখন ভারত পাকিস্তানকে চার টুকরো করবে তখন যেন চীন নিউট্রাল এ থাকে”। এটা পরিষ্কার যে ভারত পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলে চীন সর্বদাই পাকিস্তানের পক্ষপাত করবে। তাই বুদ্ধিমানের কাজ হলো চীনকে সর্বদা নিউট্রাল রেখে কাজ করতে হবে। তাই চীনকে নিউট্রাল রাখার জন্য চীনের থেকেও শক্তিশালী দেশ তথা আমেরিকার ভরসা ভারতকে জিতে নিতে হবে।

আর একমাত্র আমেরিকার ভরসা জিততে পারলে পাকিস্তানের ইতিহাস ভূগোল 2 মিনিটে পরিবর্তন হয়ে যাবে। স্বামীজীর বক্তৃতা থেকে পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে যে ভারত এবার কোনো ছোটমোটো সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এর প্রস্তুতি নিচ্ছে না, ভারতের এবারের পদক্ষেপ সার্জিকাল স্ট্রাইক এর থেকে অনেক বেশি কার্যবাহি হয়ে উঠবে। গবেষকদের মতে চীনকে নিউট্রাল রাখার জন্য ভারতীয় নাগরিকদের চাইনিজ প্রোডাক্ট বয়কট করে স্বদেশী দ্রব্যকে আপন করে সরকারের এই পদক্ষেপে দেশকে সাহায্য করার দাবি জানানো হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button