আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মহিলাদের স্বনির্ভর করে তুলতে 5000 টাকা করে দিতে চলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়…

পাখির চোখ 2021, তৃণমূলের মতো বিজেপিও এখন থেকেই কোমর বাঁধতে শুরু করেছে। লোকসভায় নির্বাচনে আশাতীত সাফল্য লাভের পর 2021-এর বিধানসভায় তৃণমূলকে গদিচ্যুত করতে নতুন টিম তৈরি করছে বিজেপি। রাজ্যে লড়াইয়ে নেতৃত্ব দেবেন দিলীপ ঘোষই। তবে তাঁর নেতৃত্বে টিমে আসতে চলেছে পরিবর্তন।অন্যদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ বিষয়ে কম যাচ্ছেন না। এর আগেও রাজ্যের কল্যাণে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিক প্রকল্পের সূচনা করেছিলেন।

তার হাত ধরেই রাজ্যে শুরু হয়েছিল কন্যাশ্রী, যুবশ্রী, রূপশ্রী, শিক্ষাশ্রীর মতো বড় বড় প্রকল্পের। এমন কী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শুরু করা খাদ্যসাথী প্রকল্পের দরুন রাজ্যের মানুষ অত্যন্ত কম মূল্যে চাল গম পেয়ে থাকেন। আর এবারও তিনি রাজ্যে বসবাসকারী মহিলাদের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর দরুন আর্থিক সাহায্য দিয়ে আরও ভালোভাবে স্বনির্ভর করে তুলতে নতুন প্রকল্পের সূচনা করতে চলেছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নতুন যে প্রকল্পটি শুরু করতে চলেছেন সেই প্রকল্পের নাম দিয়েছেন জাগো প্রকল্প।
রাজ্যের মন্ত্রীদের দাবি, এই ‘জাগো’ প্রকল্পে উপকৃত হলেন রাজ্যের অন্তত 1 কোটি মহিলা।
নতুন বছরের শুরুতে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন যে এই জাগো প্রকল্পের দরুন রাজ্যের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের জন্য এককালীন 5000 টাকা করে দেওয়া হবে। এই বিষয়ে গতকাল বাঁকুড়া জেলায় জেলা শাসকের দপ্তরে একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত করা হয়েছিল রাজ্যের তরফ থেকে। আর সেখানে সমস্ত স্বনির্ভর গোষ্ঠী গুলিকে আর্থিক সহায়তা দানের পাশাপাশি ব্যাংক থেকে ঋণ দেওয়া হবে বলেও জানানো হয়। এই জাগো প্রকল্পের জন্য 700 কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

তবে বলে রাখি এই প্রকল্পটিকে শুরু করা হয়েছে রাজ্যের মহিলাদের স্বনির্ভর করে তুলতে। এই জাগো প্রকল্পের বিষয়ে আরও অধিক জানতে আপনি 7773003003 নাম্বারে মিসকল দিতে পারেন কিংবা মেসেজ পাঠাতে পারেন। তবে এরই সাথে বলে রাখি এই মিস কল বা মেসেজের মাধ্যমে এককালীন 5 হাজার টাকা করে দেওয়া হবে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের কে। তবে বলে রাখি এরকম স্বনির্ভর গোষ্ঠী প্রকল্প কিন্তু আগে থেকেই রাজ্যে রয়েছে। তবে আবারও গোষ্ঠীর মহিলাদের স্বনির্ভর করে তুলতে আরও সুযোগ-সুবিধা দিতে নেমে পড়লেন রাজ্য সরকার।