অভিষেকের মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া দিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ, “পাল্টা বরদাস্ত” না করার হুঁশিয়ারি…

লোকসভা নির্বাচন যত সামনে আসছে রাজনৈতিক উত্তেজনা ততো বাড়ছে। তৃণমূল বিধায়ক খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ফুলবাড়ীতে সত্যজিৎ এর পরিবারের সাথে দেখা করেন। এরপর তিনি বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন দোষীদের কাউকে ছাড়া হবে না। দোষীদের কলার ধরে টেনে থানায় নিয়ে যাবেন বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।অভিষেকের এই মন্তব্যের পর দিলীপ ঘোষ বলেন, এমনটা যদি হয় তাহলে এর ফল তৃণমূলকেই ভুগতে হবে। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের অভিযোগ, নদিয়ায় বিধায়কের খুনের ঘটনাতে জোর করে বিজেপির নাম জড়ানো হচ্ছে। নিজেদের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব কে লুকানোর জন্য বিজেপি ওপর দোষ চাপাচ্ছে তৃণমূল।

এই ঘটনাটি ঘটেছে পুরোটাই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জন্য।গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব লুকাতে তৃণমূল লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির নামে উল্টোপাল্টা অপপ্রচার করছে।
শুধু এখানেই থামেন নি দিলীপ ঘোষ তিনি আরো বলেছেন, জোর করে বিজেপি কর্মীদের ধরা হচ্ছে। মিথ্যা মামলায় কর্মীদের জেলে ঢোকানো হচ্ছে। শুধু এটাই নয় খুনের মামলায় জড়ানোর চেষ্টা করছে বিজেপি কর্মীদের। ওরা যদি বেশি বাড়াবাড়ি করে তাহলে বিজেপি এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবে। এমনটাই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে দিলীপ ঘোষ জানান। তিনি তৃণমূল কে উদ্দেশ্য করে হুঁশিয়ারি দেন, আজ থেকে দু বছর আগে বিজেপির সাথে বর্তমানে বিজেপি দলের শক্তির তুলনা টানেন। তিনি আরও জানান যে পশ্চিমবঙ্গে আগেকার বিজেপির থেকে বর্তমানে বিজেপি দল অনেক শক্তিশালী। তাই কোন গাজোয়ারি আমরা বরদাস্ত করবো না। আর এরপরও যদি তৃণমূল গাজোয়ারি করার চেষ্টা করে তাহলে তার ফল কিন্তু তৃণমূলকেই ভুগতে হবে, এমনটা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ।

এরপর মুকুল রায়ের প্রসঙ্গ টেনে বলেন বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ বলেন, এই খুনের পেছনে কিভাবে মুকুল রায়ের নাম টানা হচ্ছে। এটা সবারই কাছে স্পষ্ট যে ওই ঘটনার দিন মুকুল রায় কৃষ্ণনগরে তো ছিলেনই না এবং তিনি রাজনৈতিক কর্মসূচি কাজে ব্যস্ত ছিলেন। নিজেদের দলের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা সাংসদ কে যেভাবে পুলিশ দিয়ে হেনস্থা করার পরিকল্পনা তারা করেছে সেটি খুবই খারাপ। তৃণমূল সরকার যদি ওই খুনের পেছনে মুকুল রায়ের নাম বাদ না দেয় তাহলে জোর তর আন্দোলনের পথে নামবে বিজেপি।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Open

Close