মধ্যবিত্তদের স্বস্তি দিতে স্টেট ব্যাঙ্কের বড় সিদ্ধান্ত! কমবে EMI-এর বোঝা

করোনাকালীন পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিক টানাপোড়েনের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে সাধারণ মধ্যবিত্তরা। এমন পরিস্থিতিতে মধ্যবিত্তদের জন্য স্বস্তির খবর নিয়ে আসছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। সুদের হারের উপর বড় সিদ্ধান্ত নিল স্টেট ব্যাঙ্ক। শোনা যাচ্ছে গ্রাহকদের উপর সুদের হার কম করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে ব্যাঙ্ক । যে সমস্ত গ্রাহকরা ব্যাঙ্কের থেকে হোম লোন নিয়েছে তাদের উপর চাপ কমানোর জন্য স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সাধারণত ২০১০ সালের জুলাই মাস থেকে যে সমস্ত গ্রাহকেরা হোম লোন নিয়েছে সমস্ত গ্রাহকদের হোম লোন বেসরেটের সাথে সংযুক্ত। সাধারণত এই সমস্ত গ্রাহকদের উপর চাপ কমানোর জন্য এরকম সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

গ্রাহক দের উপর চাপ কমানোর জন্য স্টেট ব্যাঙ্ক বেসরেট এর সুদ কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ২০২১ এর ১৪ সেপ্টেম্বর ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই সেপ্টেম্বরে ব্যাঙ্ক বেসরেটের উপর প্রায় ০.০৫ শতাংশ সুদ কমিয়েছে। ব্যাঙ্কের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ২০২১ এর ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে এই নিয়ম চালু করা হবে। এই নতুন নিয়ম অনুসারে বর্তমানে নতুন সুদের হার হয়েছে ৭.৪৫ শতাংশ। এক্ষেত্রে লেন্সিং রেট কমিয়ে ১২.২০ শতাংশ করা হয়েছে। এই নতুন নিয়মানুসারে গ্রাহকরা অনেকটাই চাপ মুক্ত হবে।SBI

সুদের হার কমার ফলে গ্রাহকদের ইএমআই কিছুটা কম দিতে হবে। এই নতুন নিয়ম চালুর ফলে গ্রাহকদের যে শুধু হোম লোন কম দিতে হবে তা নয়। এছাড়া আরও কয়েকটি লোন দেওয়ার ক্ষেত্রে তারা সুবিধা পাবে। গ্রাহকরা হোম লোন, অটো লোন ,পার্সোনাল লোন ,সহ আরও বিভিন্ন ধরনের লোনের ক্ষেত্রে কমসুদ দিতে হবে। ফলে গ্রাহকরা সত্যিই অনেক লাভবান হবে। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সাথে সাথে কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাঙ্ক ও হোম লোনের সুদের হার কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই ব্যাংকের তরফ থেকে সুদের হার ৬.৫০ শতাংশ করা হয়েছে।

এস বি আই এর এই নতুন সিদ্ধান্তের সার্বিকভাবে গ্রাহকদের সুবিধাই হবে বলে মনে করা হচ্ছে এক বছরের মধ্যে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার এমসিএলআর রেট কমে ৭.০০ শতাংশ হয়েছে। এক বছর আগে যেখানে এই সুদের হার ছিল ৭. ২৫ শতাংশ। বর্তমানে ২০২১ এর জুন মাস থেকেই ব্যাংকের তরফ থেকে এমসিএলআর এর সুদের হার ০.২৫ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ২০২০, ১০ জুন থেকেই নিয়ম কার্যকর করা হয়েছে। এছাড়া বর্তমানে বেসরেটে এর উপর সুদের হার কমে তা হয়েছে ৭.৪০ শতাংশ। বর্তমানে বলা হচ্ছে ব্যাঙ্কের এই নতুন নিয়মে সার্বিকভাবে গ্রাহকেরা উপকৃত হবে।