শুরু হচ্ছে নতুন আবেদনপত্র! বিশেষ রেশন কার্ডে মিলবে এবার পরিচয় পত্র…

দেশে বহুকাল আগে থেকেই রেশন কার্ডের গুরুত্ব বোঝায় থেকেছে দেশে তা সে পরিচয় পত্র হিসাবে হোক কিংবা রেশন তোলার ক্ষেত্রেই হোক না কেন। তবে এবার যে খবরটি বেরিয়ে আসছে সেখানে শোনা যাচ্ছে পরিচয় পত্র হিসাবে ব্যবহার করার জন্য এক বিশেষ কার্ডের আবেদন পত্র শুরু করে দিয়েছে খাদ্য দপ্তরে তরফ থেকে। নবান্নের তরফ থেকে 10 নম্বর ফর্ম এর জন্য ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যেই। খবর সূত্রে জানতে পারা গেছে যে পুজোর ছুটির পর দপ্তরের কাজকর্ম শুরু হলে শুরু হবে বিলির কার্য তাই এই ফার্মটি আজ 17 অক্টোবর থেকে বিলির কার্য শুরু করা হবে।

তবে এই নতুন রেশন কার্ড দিয়ে কোন প্রকার খাদ্য সামগ্রী পাওয়া যাবে না শুধুমাত্র পরিচয় পত্র হিসেবে ব্যবহার করা হবে এই রেশন কার্ডটিকে। তবে হঠাৎ করে কেন শুরু করা হল এই কার্ডের জন্য আবেদন? তো সম্প্রতি আপনাদের বলে রাখি এনআরসি নিয়ে সাধারন মানুষের মধ্যে একটি আতঙ্কের তৈরি হয়েছে যার প্রেক্ষাপটেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই বিশেষ ধরনের রেশন কার্ড তৈরির জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

তারপরে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বদলীয় বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্তটিকে গ্রহণ করেছেন। তবে দপ্তর সূত্রে আরো একটি খবর এখন বেরিয়ে আসছে যেখানে শোনা যাচ্ছে বিশেষ রেশন কার্ড প্রাপকদের কয়েকটি বিশেষ বিষয়ের ওপর বিশেষ ছাড় দেওয়ার বিষয়ে কয়েকটি শপিং মল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা চালানো হচ্ছে বলে শোনা যাচ্ছে। আর একই সঙ্গে আগামী মাস থেকে ফের চালু করা হচ্ছে এই রেশন কার্ড সংশোধনের কাজ।

যেখানে খাদ্য সামগ্রী পাওয়া কার্ডের পাশাপাশি এই বিশেষ কার্ডের জন্যও আবেদন করা যাবে। এর আগে প্রথম দফায় সেপ্টেম্বর মাসে বিশেষ যে ক্যাম্পটি করা হয়েছিল নতুন রেশন কার্ডের জন্য সেখানে প্রায় আট লক্ষেরও বেশি আবেদনপত্র জমা পড়েছিল।আর আবেদনকারীদের এই বিষয়ে আর্থিক অবস্থা কে খতিয়ে দেখার পরই এই ভর্তুকি খাদ্যসামগ্রী কার্ড দেওয়া হবে।এর সাথে সাথে সেপ্টেম্বর মাসের বিশেষ রেশন কার্ডের ভুল সংশোধনের জন্য প্রায় 18 লক্ষ আবেদনপত্র জমা পড়েছে। খাদ্য দপ্তর সূত্রে আরো একটি খবর বেরিয়ে আসছে যেখানে শোনা যাচ্ছে এবার থেকে সমস্ত রেশন কার্ড গ্রাহকদের বাড়িতেই সরাসরি পাঠিয়ে দেওয়া হবে অর্থাৎ এই রেশন কার্ড একবার আবেদন করার পর আপনাকে যেতে হবে না কোথাও।

Related Articles

Close