স্লিপার ক্লাসের যাত্রীদের জন্য বিশেষ পরিষেবা আনল রেল, বিস্তারিত জানতে..

ট্রেনে উঠলে কোমরে ব্যথা! আর তার ওপর যদি যাত্রা হয় এক-দু’দিনের যাত্রা তাহলে আর কথাই নেই৷ কেউ কেউ ট্রেনে উঠলেই ঘুমিয়ে পড়েন আবার কেউ রাত ট্রেনে ঘুমাতে হবে শুনলেই মাথায় হাত৷ এসি হলে তাও ঠিক আছে কিন্তু স্লিপার ক্লাসে ট্রেনে যাত্রা করা মানে চিরকালই যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে কারো যদি সাইড বার্থ পড়ে তাহলে ট্রেনে রাতে ঘুমানোর ব্যাপারে নৈব নৈব চ। কিন্তু আপনার জন্য এবার রয়েছে সুখবর। আর কোন চিন্তা নেই। ট্রেনযাত্রা এখন হবে আরো আরামদায়ক।

সকাল-সকাল খান এক কাপ মোরিঙ্গা টি ব্যাস, প্রেসার-সুগার কন্ট্রোল

 

ভারতীয় রেল আপনার জন্য নিয়ে এসেছে দারুন একটি পরিষেবা। স্লিপার ক্লাস ট্রেনের যাত্রীদের চার রকম বার্থ থাকে৷ আপার বার্থ একেবারে ওপর, মিডিল বার্থ মানে মাঝখানে আর লোয়ার বার্থ একদম নিচের দিকে। এবং জানালার পাশে যে বসার সিট থাকে সেটাই সাইড বার্থ৷

যাত্রীরা অভিযোগ করেছেন বার্থগুলির মধ্যে ব্যবধান এর জন্য বিশ্রাম বা রাতে ঘুমানোর সময় প্রচন্ড অস্বস্তি হয়। যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ উঠে আসায় এবার রেল কর্তৃপক্ষ তাদের পরিষেবায় বদল আনলেন। সম্প্রতি একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছিল। যেখানে রেলের একজন কর্মকর্তা বুঝিয়ে দিচ্ছেন কিভাবে নতুন বসার জায়গা গুলির কাজ করবেন। জানলার পাশে দুদিকের দুটি সাইড বার্থ একসঙ্গে জুড়ে তার ওপর একটি বিছানা করে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ব্যবস্থা যাত্রার জন্য বেশ আরামদায়ক হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।