সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি DRDO-র ঘাতক অস্ত্র পেতে চলেছে ভারতীয় সেনা, ১ মিনিটে ছুঁড়বে ৭০০ বুলেট

পুরনো ৯ এমএম কার্বাইন বাতিল করা হল। তার পরিবর্তে ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর হাতে অত্যাধুনিক কার্বাইন তুলে দিচ্ছে ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ডিআরডিও)। ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পে এই কার্বাইন তৈরি করা হয়েছে৷ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই কার্বাইনের এতদিন পর্যন্ত ট্রায়াল চলছিল। এবার অস্ত্র ব্যবহারে সম্মতি দিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

এতদিন দেশের সশস্ত্র বাহিনী ৯ এম এম কার্বাইন দিয়ে কাজ মেটাত৷ এবার জয়েন্ট ভেনচার প্রোটেকটিভ কার্বাইন তাদের হাতে এল৷ সিআরপিএফ ( CRPF) , বিএসএফ ( BSF) এবং রাজ্যের পুলিশ বাহিনী এই অস্ত্র ব্যবহার করতে পারবে।

৫.৫৬*৩০ মিলিমিটার এই কার্বাইন পুরোপুরি দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি। DRDO অর্ডন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডের তত্ত্বাবধানে এই কার্বাইন বানিয়েছে৷ প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই জয়েন্ট প্রোটেকটিভ ভেঞ্চার কার্বাইন প্রতি মিনিটে ৭০০ রাউন্ড গুলি ছুঁড়তে পারে। এটি আসলে সেমি-অটোমেটিক মেশিনগান। ১০০ মিটার পাল্লায় নিপুণ নিশানা করতে পারে এই সাব-মেশিনগান। প্রায় ৩ কেজি ওজনের এই মেশিনগানের পাল্লা প্রয়োজনে বাড়ানো যাবে৷ এই মেশিনগানের ট্রায়াল করেছে ডিরেক্টোরেট জেনারেল অব কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স।

পাহাড়ি এলাকায় প্রতিকূল আবহাওয়াতেও এই মেশিনগান ব্যবহার করতে পারবে সেনা জওয়ানরা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, লাদাখের প্রবল পাহাড়ি শীতেও এই সাব-মেশিনগান নির্ভুল লক্ষ্যস্থির করতে পারবে। প্রথমে বিভিন্ন রাজ্যের পুলিশ এবং সেন্ট্রাল আর্মড পুলিশ ফোর্স এর কাছে এই সাব-মেশিনগান পৌঁছে দেওয়া হবে। তারপর সেনাবাহিনীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে লাদাখেও পাঠানো হতে পারে এই সেমি-অটোমেটিক সাব-মেশিনগান।

মোদি সরকারের এই যোজনায় কম টাকা ইনভেস্ট করে পাবেন বেশি পেনশন

অন্যদিকে, আমেরিকা থেকে অত্যাধুনিক সিগ সর ৭১৬ অ্যাসল্ট রাইফেল আনতে চলেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এই রাইফেল তৈরি করেছে আমেরিকার দ্য স্মল আর্ম ম্যানুফ্যাকচারার। প্রথম দফায় মার্কিন অস্ত্র সংস্থার থেকে ৭২ হাজার ৭.৬২ এমএম অ্যাসল্ট রাইফেল আনা হয়েছে৷ দ্বিতীয় দফায় আরও ৭২ হাজার সিগ সর অ্যাসল্টের বরাত দিতে চলেছে দেশের সেনাবাহিনী।

ফ্রন্টলাইন সেনা জওয়ানরাই সিগ ৭১৬ অ্যাসল্ট রাইফেল মূলত ব্যবহার করেন । ৫.৫৬X৪৫ মিমি কার্তুজের ইনসাস রাইফেলের চেয়ে ৭.৬২X৫১ মিমি কার্তুজের সিগ সর অ্যাসল্ট রাইফেল অনেক বেশি আধুনিক ও শক্তিশালী । ১৬ ইঞ্চির ব্যারেলের এম-এলওএম হ্যান্ডগার্ড রাইফেলে রয়েছে ৬ পজিশন টেলিস্কোপিক স্টক। এই রাইফেল দিয়ে যে কোনও দিক থেকেই শত্রুকে ঘায়েল করা যাবে। এই রাইফেল তাইওয়ানের ন্যাশনাল পুলিশ এজেন্সির স্পেশাল অপারেশন গ্রুপের হাতে থাকে।