সাবধান! এখন লোকেশন ট্রাকিং-এর মাধ্যমে চুরি হয়ে যাচ্ছে আপনার গোপন তথ্য

স্মার্টফোন ব্যবহার করতে গেলে স্মার্ট হতে হয় কথাটা প্রচলিত। না বুঝে  স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা অনেক সময় এমন কিছু অ্যাপ ডাউনলোড করে ফেলেন, যা  বিপদের কারণ হয়৷

কোনো অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় অথবা পরিষেবা চালু করার জন্য অনুমতি চাওয়া হয় ব্যবহারকারীর কাছ থেকে। এর সঙ্গে জড়িয়ে থাকে গোপনীয়তা।  কিন্তু অনেকেই এ ব্যাপারে জানেন না বা ততটা গুরুত্ব দেন না।

লোকেশন ট্রাকিং

গবেষণা বলছে, লোকশন ট্র্যাকিং অ্যাপের মাধ্যমে ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে৷ এর  প্রমাণ মিলেছে। এই অ্যাপ্লগুলি কী ধরনের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করছে , সেটাও শনাক্ত করতে পারা গেছে৷ লোকেশন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে এইভাবে ব্যক্তিগত তথ্যে হাতিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে  প্রথম এই ধরনের  গবেষণা বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

ইতালির বোলোগনা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই গবেষক এবং লন্ডনের ইউনিভার্সিটি কলেজের বেঞ্জামিন ব্যারনের গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে, কী ভাবে এই জাতীয় তথ্য জোগাড় করে ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা নষ্ট করা হচ্ছে। এই লক্ষ্যে, গবেষকরা একটি ট্র্যাকিংঅ্যাডভাইজার তৈরি করেছেন, যা ব্যবহারকারীর অবস্থানের তথ্য সংগ্রহ করে।

গোপনীয়তা সংবেদনশীলতার দিক থেকে এর প্রাসঙ্গিকতা যাচাই করার পদ্ধতিও রয়েছে।

লোকেশন ট্রাকিং

বোলোগনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মিরকো মুসোলসি বলেছেন, “স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা অনেক সময় মোবাইল অ্যাপ এবং অন্য়ান্য পরিষেবা ব্যবহারের বিষয়ে যথেষ্ট ভাবে সচেতন নন। বিশেষত লোকেশন ট্র্যাকিংয়ের মতো পরিষেবার ক্ষেত্রে অনুমতি দেওয়া হলে গোপনীয়তার উপর যে প্রভাব পড়ে, সে সম্পর্কে বেশির ভাগই অসচেতন”।

এই তথ্য  ব্যবহারকারীর বাসস্থান, তাদের অভ্যাস, আগ্রহ, এবং ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে তথ্য সরবরাহ করে।  ট্র্যাকিংঅ্যাডভাইজার অ্যাপের মাধ্যমে গবেষকরা অ্যাপটি কী ভাবে ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করেছে, তা শনাক্ত করতে পেরেছেন৷

ভোটের মুখে বড়োসড়ো ঘোষণা রাজ্য সরকারের, আজ থেকে কমছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম

৬৯ জন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী এর ওপর এই গবেষণা করা হয় । যাঁদের মোবাইলে দু’সপ্তাহের জন্য এই ট্র্যাকঅ্যাডভাইজার অ্যাপটি চালু ছিল। প্রায় ২,০০০টি অবস্থান শনাক্ত করে এবং ডেমোগ্র্যাফিক এবং ব্যক্তিত্ব উভয় বিষয়ে সম্পর্কিত প্রায় ৫০০০টি ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করেছে।

স্বাস্থ্য, আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতি, জাতি ও ধর্ম সম্পর্কিত তথ্য গ্রহণ করেছে । মুসোলসি বলেছেন, “আমরা মনে করি যে এ ধরনের অ্যাপ লোকেশন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে যে তথ্যগুলি সংগ্রহ করতে পারে তার পরিমাণ এবং গুণমানের বিষয়ে ব্যবহারকারীদের সচেতন হওয়া গুরুত্বপূর্ণ”।

অর্থাৎ, অ্যাপ ম্যানেজার বা বিপণন সংস্থাগুলির সঙ্গে তথ্য এর আদানপ্রদান গ্রহণযোগ্য কি না বা এটাকে তাঁদের গোপনীয়তা লঙ্ঘন বলে মনে করেন কি না, সে বিষয়গুলিও সমান গুরুত্বপূর্ণ।