অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লা প্রতি মাসে আয় করতেন ১০ লাখ টাকা, জানুন মৃত্যুর পর কত টাকার সম্পত্তি রেখে গেলেন

সুশান্তের পর সিদ্ধার্থের মৃত্যু আমরা অনেকেই মেনে নিতে পারিনি। যে বয়সে এই তারকারা মৃত্যুবরণ করলেন, সেটি সবেমাত্র ক্যারিয়ার তৈরি করার সময়। সিদ্ধার্থ শুক্লা মাত্র ৪০ বছর বয়সে হূদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করলেন। অভিনেতার এই আচমকা মৃত্যুর খবর শুনে রীতিমতো স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছিলেন সকলে। খুব অল্প বয়সে সিদ্ধার্থ খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। তিনি ছিলেন বিগ বস ১৩ বিজেতা। এই অনুষ্ঠানের মধ্য থেকেই তাঁর প্রেম জীবনের যাত্রা শুরু হয়েছিল।

মুম্বাইয়ের কুপার হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়েছিল। সূত্র অনুসারে জানতে পারা গিয়েছিল, রাতে ঘুমানোর আগে ঘুমের ওষুধ খেয়ে শুয়ে ছিলেন তিনি। এরপর সকালে আর উঠতে পারেননি তিনি। সিদ্ধার্থ চলে যাওয়ার পর তাঁর সম্পত্তির মালিক এখন শুধু মা এবং তার বোনেরা। মারা যাওয়ার আগে কোটি কোটি সম্পত্তি রেখে গেছেন তিনি। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ১০ কোটি টাকা। এক মাসে প্রায় ১০ লক্ষ টাকার বেশি আয় করতেন তিনি।

২০০৮ সালে টিভি সিরিয়াল ” বাবুলকা আঙ্গণ ছোটে না”, ধারাবাহিক দিয়ে তিনি তাঁর ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। তবে খ্যাতি শিরোনামে তিনি পৌঁছে গিয়েছিলেন “বালিকা বধূ” সিরিয়ালের মাধ্যমে। ১৯৮০ সালের ১২ ই ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেছিলেন তিনি। তিনি পেশায় ছিলেন একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। মূলত এলাহাবাদের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। স্কুলজীবনে টেনিস ও ফুটবল খেলতে পছন্দ করতেন তিনি।

কিছুদিন আগেই তিনি একটি বিলাসবহুল বাড়ি গিয়েছিলেন। কিনেছিলেন একটি বিএমডব্লিউ গাড়ি। দেশের জনপ্রিয় অভিনেতাদের মধ্যে একজন ছিলেন সিদ্ধার্থ। ব্যক্তিগতভাবে তিনি রিয়েল এস্টেট ব্যাপক পরিমাণে বিনিয়োগ করতেন এবং সেই বিনিয়োগের লাভের অংশটি তিনি খরচ করতেন তাদের জন্য।