জনগণের ৬ কোটি টাকা নিয়েছেন শুভেন্দু, ওপেন চ্যালেঞ্জ অভিষেকের

আগামী বিধানসভা নির্বাচন আসতে এখনো বাকি রয়েছে তিন মাস।  কিন্তু বাংলায় নির্বাচন যে চলে এসেছে তা পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক অবস্থা দেখলেই বোঝা যাচ্ছে।  প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন বিষয়কে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠছে রাজ্য রাজনীতি।  শাসক এবং বিরোধী দলের মধ্যে বাদানুবাদ বিতর্ক চরমে পৌঁছেছে।  কুলতলির জনসভা থেকে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া প্রাক্তন তৃণমূল মন্ত্রী  বর্তমানের বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে তীব্র আক্রমণ করলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একাধিকবার বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।  তাকে তোলাবাজ ভাইপো বলেও আখ্যায়িত করেছেন।  এবার বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

অভিষেক  ওপেন চ্যালেঞ্জ করেন দক্ষিণ 24 পরগনার কুলতলী  জনসভা থেকে৷  সারদা কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত সুদীপ্ত সেনের লেখা একটি চিঠি তিনি মানুষজনের কাছে তুলে ধরেন।  এবং সেই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন শুভেন্দু অধিকারী মানুষের 6 কোটি টাকা লুট করেছে।

সমীক্ষা বলছে আস্থা এখনো মোদি সরকারের ওপরেই, ধারে কাছে নেই বিরোধী দলগুলি

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,  শুভেন্দু অধিকারী সুদীপ্ত সেনের কাছ থেকে মানুষের ছয় কোটি টাকা ঘুষ নিয়েছেন।  চিঠি পড়তে পড়তে তিনি জানান সুদীপ্ত সেনকে ব্ল্যাকমেল করতেন শুভেন্দু অধিকারী।  সেইসঙ্গে ওপেন চ্যালেঞ্জ করে বলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।  তিনি বলেন ” তোলাবাজ ভাইপো বলছে, শুভেন্দু অধিকারী ঘুষখোর, পারলে আমার বিরুদ্ধে মামলা করে আমাকে জেলে ঢুকিয়ে দেখাক।”

বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং বিজেপির কেন্দ্রীয় সভাপতি কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে  বহিরাগত বলেও উল্লেখ করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় । বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষকে বলেছেন ‘গুণ্ডা’। সেইসঙ্গে তিনি বলেন,  তাঁকে তোলাবাজ ঘোষণা করতে পারলে তিনি মৃত্যুবরণ করবেন। একুশের ভোটের আগে রীতিমতো উত্তপ্ত আবহ৷  আরো একবার প্রকাশ্যে আনল এদিনের কুলতলির জনসভা।