এবার শত্রুঘ্ন সিনহা পড়তে চলেছেন বিপদে! বিজেপি দিতে চলেছে ঝাটকা।

আগত 2019 এর লোকসভা নির্বাচনের জন্য প্রতিটি দলই এখন উঠে পড়ে লেগেছে। প্রতিটি দলের নেতারা চেষ্টা করছেন কিভাবে তাদের দলকে অন্য দলের থেকে শ্রেষ্ঠ বলে প্রমানিত করা যায়। যার জন্য তারা সর্বশক্তি লাগিয়ে নেমে পড়েছেন প্রচারের কাজে। যেমন কি এখনো পর্যন্ত আপনারা সকলেই জানেন যে 2019 এ প্রধানমন্ত্রী হিসাবে সবচেয়ে বড়ো চেহারা নরেন্দ্র মোদীই রয়েছেন। আর যখন প্রধানমন্ত্রী বাছার নাম আসে তখন নরেন্দ্র মোদী ছাড়া অন্য কারুর নাম মাথায় আসে না। কিন্তু এখনো কিছু নেতা বিজেপিতে আছে যারা পার্টির বিপক্ষে বলতে দ্বিতীয় বার ভাবে না। এরই মধ্যে একজন নেতা যিনি বলিউডের নামকরা অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা।


শোনা যাচ্ছে যে শত্রুঘ্ন সিনহাকে এখন পাটনার বিমানবন্দরে বিশেষ সুরক্ষার আর অনুমতি দেওয়া হবে না‌। রাজপ্রকাশ নারায়ণ বিমানবন্দরের পরিচালক রাজেশ লাহোরিয়া জানান, শত্রুঘ্ন সিনহা কে তার গাড়ি ভিতরে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি ও নিরাপত্তা সুবিধা ছিল কিন্তু এখন এই সুবিধা বন্ধ হয়ে গেছে।তিনি জানিয়েছেন, এই সুবিধা টি শুধুমাত্র কিছু সময়ের জন্য ছিল এবং গত বছরই জুন মাসেই এই সময়সীমার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে এবং কেন্দ্রীয় সরকার থেকে এই সময় সীমার মেয়াদ বাড়ানোর কোন নির্দেশ দেওয়া হয়নি। তবে অনেক মানুষ বিশ্বাস করছে যে তার নিজস্ব পার্টির বিরুদ্ধে কটু কথা বলার কারণে তার সঙ্গে এটি করা হয়েছে। বিজেপি বিরুদ্ধে কথা বলার জন্য শত্রুঘ্ন সিনহা একটুও দ্বিধাবোধ করেন না।

আর শুরু থেকেই তিনি বিজেপির নেতৃত্বের সমালোচনা করছেন। এখন দেখার বিষয় একটাই যে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তিনি বিজেপি থেকে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন না অন্য কোনও পক্ষ থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তবে অনেকের বিশ্বাস যে তিনি ইতিমধ্যেই বিজেপি থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে না এমন নির্দেশনা জানিয়েছেন।