গিয়েছিল মাধ্যমিকের রেজাল্ট নিয়ে ব্যঙ্গ করতে, নেট দুনিয়ার জোরালো কটাক্ষের শিকার বামনেতা শতরূপ ঘোষ

বামনেতা শতরূপ ঘোষ সংবাদ মাধ্যমে বলা নিজের মতামত নিয়ে প্রায়ই নেটাগরিকদের চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন। তবে এবারে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলেন মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ নিয়ে লেখা তার পোস্টের জন্য। আজ প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফল। তিনি আজ তার নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেছেন সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘একসাথে ৭৯ জন ছায়া প্রকাশনীর মডেল’ এই পোস্ট করার পর ফল হয়েছে উল্টো। শুরু হয়ে গেছে একের পর এক ট্রলড শতরুপ কে নিয়ে।

গত বছর করোনার দ্বিতীয় জন্য বাতিল হয় মাধ্যমিক পরীক্ষা এবারেও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এর ধাক্কায় মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে পড়ুয়াদের কথা মাথায় রেখে, সেই হিসাব করেই বিকল্প মূল্যায়ন পদ্ধতির ভিত্তিতে পর্ষদ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ করেছে। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ হয়েছে। ৭০০ এর মধ্যে ৬৯৭ পেয়েছে মোট ৭৯ জন। অন্যান্য বছরে তুলনায় এই বছরের পাশের হার ১০০ শতাংশ। যা সম্পূর্ণ ব্যতিক্রমী।

এই নিয়েই বামনেতা শতরূপ ঘোষ তার নিজের ফেসবুকে মাধ্যমিক এর ফল প্রকাশ নিয়ে ব্যাঙ্গ করে লিখেছিলেন, ‘এ বছরে ৭৯ জন ছায়া প্রকাশনীর মডেল’। এই লেখা নিয়েই সাথে সাথে নেটাগরিকদের কটাক্ষের মুখে পড়ে বামনেতা। বেশিরভাগ মানুষ ভোটের ফল প্রকাশ নিয়ে তাকে ব্যাঙ্গ করেছেন, কেউ কেউ তার কমেন্টে লিখেছেন মাধ্যমিকের ফেল এর হার সমান সিপিএমের বিধায়ক সংখ্যা এক। কেউ আবার বামনেতা শতরূপ ঘোষকে অপদার্থ বলে কটাক্ষ করেছেন।

অনেকেই আবার বলেছেন এই রকম মন্তব্য আশা করা যায় না শতরূপ ঘোষের কাছ থেকে। ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে সিপিএমের পদ শূন্য। অনেকে লিখেছেন তুমি আগে কসবার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হও। অন্যদিকে সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন মাধ্যমিকের ফলাফল নিয়ে এসএফআই যে বিবৃতি জারি করেছে সেটাকে সংগঠনের বিবৃতি হিসেবে ধরা হোক ১০০ শতাংশ পাশ করেছে বলেই ছাত্র-ছাত্রীদের দায়ী করা ঠিক নয় কারণ পরীক্ষা দিতে ছাত্র-ছাত্রীরা রাজি ছিলেন সহকারী তাদের পরীক্ষা নিতে পারেননি তাই ছাত্র-ছাত্রীদের যাতে কেউ বিরূপ মন্তব্য না করেন সেদিকে আমাদের সবাইকে নজর রাখতে হবে।এর সঙ্গে পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের যাতে ভর্তি করার ব্যবস্থা করা হয় সেই দিকে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইছি।