উত্তরবঙ্গ সহ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলাতে নিম্নচাপের জেরে আগামী চার থেকে পাঁচ দিন বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা, বড়োসড়ো দুর্যোগের আশঙ্কা

ফের আকাশের মুখ ভার শহর জুড়ে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে শনি বার থেকেই দক্ষিণবঙ্গ সহ গোটা কলকাতায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। বেশ কিছু দিন ধরেই কলকাতা সহ পাশাপাশি এলাকা জুড়ে বৃষ্টিপাত হয়েই চলেছে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, দক্ষিণবঙ্গ ও উত্তরবঙ্গ সহ বিভিন্ন জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। আসছে রবিবার থেকে উত্তরবঙ্গে লাগাতার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

উত্তরবঙ্গে দার্জিলিং, কালিম্পং ও জলপাইগুড়িতে রয়েছে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। তবে উত্তরবঙ্গের অন্যান্য জেলা গুলিতে মাঝারি সহ হালকা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। পরবর্তী ২৪ ঘন্টা অর্থাৎ সোমবার থেকে বাড়বে উত্তরবঙ্গে এই তিন জেলায় বৃষ্টি।

হিমালয়ের পাদদেশ সংলগ্ন পাঁচ জেলায় চলবে লাগাতার বৃষ্টি এই আভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বৃষ্টি হবে জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারের বেশ কিছু জায়গায় হতে পারে ভারী বৃষ্টিপাত। আগামী চার থেকে পাঁচ দিন আবহাওয়ার কোনরকম পরিবর্তন হবে না বলেই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই। তবে বেশ কিছু এলাকায় খুব সামান্য বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। শনি বার থেকে দক্ষিণবঙ্গের কিছু এলাকায় খুব মাঝারি থেকে হালকা মাপের বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। তবে আগামী সোমবার অর্থাৎ ৯ ই আগস্ট থেকে দক্ষিণবঙ্গে হতে পারে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা ও মাঝারি বৃষ্টিপাত।

ইতিমধ্যেই কলকাতার আকাশ মেঘলা। কোথাও কোথাও লাগাতার হালকা বৃষ্টিপাত হয়েই চলেছে। আবহাওয়া দফতর এর খবর, সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ৩৪ থেকে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই মুহুর্তে নিম্নচাপ অবস্থান করছে উত্তর পশ্চিম মধ্যপ্রদেশের উপরে। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, মৌসুমি অক্ষরেখা আগামী ১০ ই আগস্ট এর পর থেকে নিজের জায়গার পরিবর্তন করবে, মৌসুমি অক্ষরেখা ওই দিন হিমালয় এর পাদদেশ থেকে সরে যাবে। বিহার ও ঝাড়খণ্ডের উপরে বৃষ্টিপাত হতে পারে ৭-১০ ই আগস্ট এর মধ্যে। আবহাওয়া খবর

উত্তর ও পূর্ব ভারতের বিস্তৃত এলাকা জুড়ে হতে পারে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টিপাত। হরিয়ানা, রাজস্থান, পাঞ্জাবে চলতে পারে ১০ ই আগস্ট পর্যন্ত হালকা ও মাঝারি বৃষ্টিপাত। দক্ষিণ ভারতে মোটামুটি বৃষ্টিপাতের পরিমাণ অনেকটাই কমে এসেছে তবে আগামী চার থেকে পাঁচ দিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।