নতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

SBI-এর কয়েক লক্ষ্য কাস্টমারদের অ্যাকাউন্টের গোপন তথ্য ফাঁস! বিস্ফোরক তথ্যে নীরবতা ভেঙ্গে এসবিআই যা জানালো…

প্রশ্নের মুখে সব থেকে বড় ব্যাংক এসবিআই এর সার্ভার । টানা দু-মাস ধরে ‘এসবিআই কুইক’ বিপদজনক অবস্থায় একটি সার্ভারে তাদের সমস্ত তথ্য পড়েছিল। সবথেকে চিন্তার বিষয় হলো ওই সার্ভারে কোন পাসওয়ার্ড দেওয়া ছিল না। ফলে লক্ষ লক্ষ গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট এর যাবতীয় তথ্য ফাঁস হয়ে যাবার সম্ভাবনা আছে। মার্কিন এক সংস্থার ‘টেকক্রাঞ্চ’ এই সংক্রান্ত এমনই এক রিপোর্ট দিয়েছেন। মার্কিন এ সংস্থাটি জানিয়েছে সার্ভারে কোন পাসওয়ার্ড না থাকার ফলে  গ্রাহকদের একাউন্টের পাসওয়ার্ড, মোবাইল নম্বর, একাউন্ট ব্যালেন্স সহ সমস্ত তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।কিন্তু এসবিআই কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ওই সার্ভারে তাদের তরফ থেকে যথাযথ পাসওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে।

ফলে তথ্য ফাঁস হয়ে যাবার কোনো সম্ভাবনা থাকছে না। ব্যাংক কর্তৃপক্ষের এমন মন্তব্যের পরেও একেবারে নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না সাইবার বিশেষজ্ঞরা। সাইবার বিশেষজ্ঞদের দাবি, মনে হয় অনেকটাই দেরি হয়ে গেছে। হ্যাকাররা এতক্ষণে গ্রাহকদের সমস্ত তথ্য চুরি করে নিয়েছে। যেকোনো সময় যেকোনো মুহূর্তে গ্রাহকদের একাউন্ট থেকে টাকা উধাও হয়ে যেতে পারে। তবে এখন অনেকেরই মনে একটি প্রশ্ন মার্কিন এই সংস্থা ‘টেকক্রাঞ্চ’ কি? তবে আপনাদের সুবিধার্থে বলে দিই এই সংস্থাটি তথ্য প্রযুক্তি সংক্রান্ত সমস্ত খবর প্রকাশ করে। কয়েকদিন আগে এসবিআই এর সার্ভার সংক্রান্ত ঘটনাটি এই সংস্থায় প্রকাশ করেন। এই সংস্থার দাবি, এসবিআই ছাড়াও ন্যাশনাল ক্রিটিক্যাল ইনফর্মেশন ইনফ্রাকচার প্রটেকশন সেন্টার এর সাথেও যোগাযোগ করেছে। তাদেরকে এ বিষয়টি সম্পর্কে পুরোপুরি জানিয়েছেন এবং দুই সংস্থার মতামত ও তারা জানতে চেয়েছেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো এটাই যে তাদের তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

যদিও পরে এসবিআই তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, তাদের সার্ভারে পরে পাসওয়ার্ড দিয়ে সুরক্ষিত করা হয়েছে। ফলে তাদের গ্রাহকদের তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা থাকছে না।আমরা হয়তো অনেকেই জানেন না এই ‘এসবিআই কুইক’ পরিষেবা টি কি? এই পরিষেবাটি হলো একটি মিসকল এর মাধ্যমে গ্রাহকরা তাদের অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স এবং শেষ পাঁচটি লেনদেনের সম্পর্কে জানতে পারে। এছাড়াও এসএমএস এর মাধ্যমে গ্রাহকরা আরো বাড়তি কিছু তথ্য জানতে পারেন। যে সমস্ত গ্রাহকদের কাছে স্মার্ট ফোন নেই বা যে সমস্ত গ্রাহকরা ইন্টারনেট ব্যাংকিং অতটা সুরক্ষিত মনে করেন না তারাই একমাত্র ‘এসবিআই কুইক’ ব্যবহার করে থাকেন।

Related Articles

Back to top button