জীবনে অনেক কিছু সহ্য করতে হয়েছে‌ অমৃতাকে, মা-বাবার বিচ্ছেদ সম্পর্কে খোলাখুলি বয়ান সারার

বলিউডের (Bollywood) একজন জনপ্রিয় অভিনেতা শর্মিলা পুত্র সইফ আলি খান (Saif Ali Khan)। সইফ আলি খান এবং অমৃতার প্রথম সন্তান হলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সারা আলি খান (Sara Ali Khan)। সারা আলি খানের যখন ৯ বছর বয়স তখন তাঁর বাবা-মায়ের মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সারা আলি খান তাঁর মা এবং বাবা সইফের মধ্যে বিচ্ছেদের ঘটনা খোলাখুলি জানালেন।

 

সারা আলি খান জানিয়েছেন তাঁর মায়ের সবকিছু থাকা সত্ত্বেও খুবই কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে তাঁর মাকে। জীবনে অনেক কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে গেছেন অমৃতা। কিন্তু তবুও কখনো ভেঙে পড়েননি। সারার কথায়, “think she has gone through so much more than I have in her life and if she can walk the way she does with her head held as high as she does as her daughter, then I would be worthy of your compliment,”।

জীবন নিয়ে সারা আলি খান যখন হতাশাগ্রস্ত হন তখন তিনি ভাবেন যে তাঁর মা তো তাঁর সাথেই আছেন। তিনিই সবকিছু ঠিক করে দেবেন। মায়ের আদর্শেই বড় হয়ে ওঠা সারার। তাই বিয়ের পর সারা আলি খান তাঁর মাকে একা ছেড়ে অন্য কোথাও যেতে চান না।

sara ali khan

এদিকে অমৃতার সম্পর্কে তাঁর স্বামী সইফ জানিয়েছেন, “তখন আমার বছর কুড়ি। অমৃতাকে বিয়ে করার জন্য বাড়ি থেকেই পালিয়ে যাই। বয়সটা নেহাতই কম। সুতরাং বুঝতেই পারছেন দায়িত্ব নেওয়ার মতো বোধ আমার তৈরি হয়নি। সে সময় অমৃতাই আমাকে শেখায় কী ভাবে কাজ, ব্যবসা সব কিছু গুরুত্ব দিয়ে করতে হয়। অমৃতা আমায় বোঝায় আমি যদি জীবনের ব্যাপারে সিরিয়াস না হই তাহলে কখনই লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবে না।”

সইফ আলি খানের সাথে অমৃতার বিয়ে হয় ১৯৯১ সালে। ঠিক তার পাঁচ বছর পর সইফ এবং অমৃতার জীবনে আসে সারা আলি খান। ২০০১ সালে জন্ম হয় ইব্রাহিমের। হঠাৎ ২০০৪ সালে সইফ আলি খানের সাথে অমৃতার বিচ্ছেদ হয়। ২০১২ সালে সইফ আলি খানের সাথে বিবাহ হয় করিনা কাপুরের। ২০১৬ সালে করিনা এবং সইফের প্রথম সন্তান তৈমুর জন্মগ্রহণ করে। ২০২১ সালে তাঁদের কনিষ্ঠ সন্তান আসে। কারিনার সাথে সারা আলি খান এবং ইব্রাহিমের অনেক ছবি ভাইরাল হলেও অমৃতার সঙ্গে কিন্তু করিনার কোনো ছবি দেখা যায়নি। তাই একথা স্পষ্টই বোঝা যায় যে অমৃতা করিনার এবং সইফের বিবাহটাকে আজও মেনে নিতে পারেননি।