খেলাধুলাদেশনতুন খবরবিশেষ

না খেলে পাকিস্তানকে 2 পয়েন্ট দেওয়া ঘৃণা করি, মন্তব্য শচীন টেন্ডুলকারের…

বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে বয়কট করার সিদ্ধান্তে মুখ খুললেন মাস্টার ব্লাস্টার শচীন টেন্ডুলকার। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যে 16 জুন ম্যাচ রয়েছে তা বয়কট করার পক্ষে এক মত নন শচীন। বরং 16 জুনে ম্যাচ খেলে পাকিস্তান কে হারানো বেশি গর্বের বলে মনে করেন ভারতের এই প্রাক্তন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এই ম্যাচ না খেলে পাকিস্তানকে 2 পয়েন্ট দিয়ে দেওয়াকে বেশি ঘৃণা করেন বলে জানিয়েছেন তিনি। আগামী 16 ই জুন বিশ্বকাপে ভারতের সাথে পাকিস্তানের ম্যাচ রয়েছে। কিন্তু পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর ভারতের বিভিন্ন মহল থেকে দাবি উঠে আসছে যে ভারত এই ম্যাচ কে বয়কট করুক। এই নিয়ে শুক্রবার সিদ্ধান্ত নিতে না পারায় পুরো বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে গড়া প্রশাসকদের কমিটির উপর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

 

 

কেন্দ্র এখনো পর্যন্ত এ নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। ভারত যদি এই ম্যাচ বয়কট করে তাহলে দুই দলের মধ্যে 2 পয়েন্ট করে ভাগাভাগি হয়ে যাবে। ঠিক এমন একটি পরিস্থিতিতে ম্যাচ বয়কট করার বিপক্ষে দাঁড়ালেন ভারতের সর্বকালের সেরা ডানহাতি ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকর। পিটিটিআই এর দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ” বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে সমস্ত ম্যাচ হেরেছে ভারত, ফের ওদের হারার সময় এসেছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে ওদের দু পয়েন্ট দিয়ে দেওয়া কে ঘৃণা করি।” মাস্টার ব্লাস্টার এর মতনই একই কথা বলেছিলেন ভারতের আরেক প্রাক্তন ক্রিকেটার সুনীল গাওস্কর। এনার বক্তব্য ছিল,” পাকিস্তানকে যদি বয়কট করে দেওয়া হয় তাহলে কারা জিতবে? আমি সেমিফাইনাল ও ফাইনালের কথা বলছি না। কে জিতবে? পাকিস্তান। কারণ, ম্যাচ বয়কট হলে ওরা দুই পয়েন্ট পাবে।”

মাঠে হোক বা মাঠের বাইরে তার মুখ থেকে কোন সময় বিতর্কিত কোনো কথা শোনা যায়নি। বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে বয়কট বিতর্কে মন্তব্য করেও স্বভাবসিদ্ধ প্রকাশ পেয়েছে এই ক্রিকেটারের গলায়। সচিন বলেছেন,” এ কথা বললেও ভারত আমার কাছে সর্বাগ্রে। তাই দেশ যা সিদ্ধান্ত নেবে তা আমি মনেপ্রাণে সেটাই সমর্থন করবো।” বাইশ গজে ভারতকে অনেকবার কঠিন পরিস্থিতির হাত থেকে বাচিয়েঁছে তারও চওড়া ব্যাট। আর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তার জ্বলে ওঠার নজির রয়েছে বহুবার। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে শচীনের অভিষেক হয়েছিল পাকিস্তানের মাটিতে। 1989 সালে অভিষেক সফরে শিয়ালকোটে তিনি শেষ টেস্টে ওয়াকার ইউনিসের বাউন্সারে নাক ফেটে রক্ত বেরোনোর পর সেদিন ওই অবস্থাতেই ব্যাট করতে গিয়েছিলেন ওই 16 বছরের শচীন।

 

 

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বীর্যে শচীনের রেকর্ড অতুলনীয়। তাই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত না খেলে পাকিস্তান দু পয়েন্ট পেয়ে যাবে এটা শচীন ব্যক্তিগতভাবে মানতে পারছেন না। শচীনের বক্তব্যে এটা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে।এ ব্যাপারে আপনাদের কি মতামত আমাদের অবশ্যই জানাবেন, আপনাদের মতামত আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আরো এরকম নতুন নতুন খবরের আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েব পোর্টালটিতে।

Related Articles

One Comment

Back to top button