৩.৮ কোটির পেন্টিং, ১.৭ কোটির ঘড়ি এবং অনেক বাংলো ও গাড়ির মালিক এই বলিউড অ্যাক্টর।

বলিউডের অনেক নামকরা অভিনেতা এবং অভিনেত্রী রয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন, অমিতাভ বচ্চন। এটা বলা মোটেও ভুল হবেনা যে, এইসকল অভিনেতা এবং অভিনেত্রীদের জন্যই বলিউড এবং হলিউডের নাম এত উচু শিখরে আর এর প্রধান কারণ হলিউড ও বলিউডের শিল্পীদের এতো খ্যাতি।যার যত নাম তার তত টাকা এটাই এখনকার সিনেমা জগতের নিয়ম।আজ আমরা যে অভিনেতার সম্মন্ধে বলবো তিনি এখনো দর্শকদের মনে রাজ করেন এছাড়াও পৃথিবীর অন্যান্য ধনী ব্যাক্তিদের মধ্যে তিনি অন্যতম ।


এছাড়াও তিনি হলেন, ভারতের একটি নামকরা অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন।আজ যে পর্যায়ে তিনি আছেন সেখানে পৌঁছানোর জন্য তাকে অনেক সংঘর্ষ করতে হয়েছে। কিন্তু আজ আমরা বিগ বি এর সম্মন্ধে যেটা জানাবো, সেটা হয়তো আপনারা জানেন না।আজ আমরা তার কাছে থাকা সম্পত্তির সম্মন্ধে জানাবো আর সেইসঙ্গে এও জানাবো যে,তার কাছে এমন কি আছে যার জন্য তাকে অন্যদের থেকে আলাদা করে তুলে ধরা হয়। ২০১৫ তে বিগ বি কে সমগ্র বিশ্বর মধ্যে ২ তম ধনী ব্যক্তি বলে মনে করা হয় এবং সেইসময় তার সম্পত্তি ছিল ২৪০০ কোটি টাকার কাছাকাছি এবং এখন তার সেই সম্পত্তি বেড়ে দাড়িয়েছে ২৮০০ কোটি টাকার মতো।আমিতাভ বচ্চন একটি সিনেমা করতে টাকা নেন ৭-৮ কোটি টাকা এবং বিভিন্ন বিজ্ঞাপনের জন্যও তিনি ৫-৮ কোটি টাকা পর্যন্ত নেন।

এত টাকা থাকা সত্যও তিনি সময়মত ইনকাম ট্যাক্স জমা করেন। আপনাদের জানিয়ে দি বিগ বি ২০ কোটি টাকা বছরে ট্যাক্স এর হিসাবে ভরেন।এছাড়াও মুম্বায়ে তার কাছে ৫ টি বাংলো আছে আর এদের নাম গুলি হলো -প্রতীক্ষা,জনক,জলসা, নেবেদ্র এবং বৎসা।এই বাংলো গুলির মধ্যে কেবলমাত্র প্রতীক্ষা বাংলোটি ১৬০ কোটি টাকার কাছাকাছি,জলসা এবং জনক এর মূল্য ৬০০ কোটি।

তিনি এতো বড়ো শিল্পী হয়ে, শিল্পী প্রেমী না হন এটা হতে পারে?কিছু সময় আগেই তিনি একটি পেন্টিং কিনে এনেছিলেন যার মূল্য ৩.৮ কোটি টাকা। একটি প্রসিদ্ধ ওয়েবসাইডের মাধ্যমে এও জানা যায় যে তার একটি ঘড়ির মূল্য ১.৭ কোটি টাকা।এছাড়াও অমিতাভ বচ্চন অনেক বড়ো গাড়ি প্রেমী।তার কাছে ১১ টি অতি মূল্যবান গাড়ি রয়েছে,এগুলোর মধ্যে কিছু গাড়ি এমন আছে যেগুলো অত্যন্ত দামি।

আরও পড়ুন :