এখন অনলাইনে ঘরে বসে এক নিমেষেই করুন ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন! রইলো পদ্ধতি

করোনা আসার পর মানুষের জীবনের গতি-প্রকৃতিতে বিপুল পরিবর্তন ঘটেছে। বেড়েছে ব্যক্তিগত বাহন এর চাহিদা।একইভাবে বেড়েছে অনলাইনে বিভিন্ন প্রকার দরকারি কাজ সেরে নেওয়া। এমত অবস্থায় এই দুয়ের সামঞ্জস্য বজায় রেখে অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে গাড়ি রেজিস্ট্রেশন ব্যবস্থা চালু করা হলো কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে। বর্তমান সরকারের তরফ থেকে অনলাইনে যে ব্যবস্থা আনা হয়েছে তাতে বাড়িতে বসেই নতুন ড্রাইভিং লাইসেন্সের আবেদন,ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করা,ফেন্সি নম্বর পাওয়া, ন্যাশনাল পারমিটের জন্য আবেদন করা সহ আরো একাধিক ব্যবস্থাপনা আনা হয়েছে।

এখন পরীক্ষা নেওয়ার পর ঘরে বসেই মেলে লাইসেন্স।অনলাইনের মাধ্যমেই ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করার সম্ভব এবং পুরো প্রক্রিয়াটি খুবই সহজ। চলুন দেখে নেওয়া যাক এক নজরে :-

১) পরিবহন বোর্ডের নিজস্ব ওয়েবসাইট https://parivahan.gov.in/parivahan এ যেতে হবে।

২) সেখান থেকে এপ্লাই অনলাইন অপশনে ক্লিক করতে হবে।

৩) ড্রাইভিং লাইসেন্স রিলেটেড সার্ভিস এ ক্লিক করতে হবে।

৪) কোন রাজ্য থেকে সার্ভিস নিতে চাইছেন সেটা সিলেক্ট করতে হবে।

৫) রাজ্য সিলেক্ট করার পরেই অন্য একটা পেজ খুলে যাবে।

৬) সেখানে এপ্লাই অনলাইন এ ক্লিক করতে হবে এবং তারপর ড্রাইভিং লাইসেন্স সার্ভিসের ওপর ক্লিক করতে হবে।

৭) সেখানে একটা অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম আসবে। সেটি ভালো করে পড়ে নিয়ে ফিল আপ করে নেক্সট অপসন এ ক্লিক করতে হবে।

৮) সেখানে জন্ম তারিখ, বর্তমান লাইসেন্স নম্বর, পিন কোড এবং অন্য বিভিন্ন অংশ পূরণ করতে হবে।

৯) সেখানে কি কি পরিষেবা চাইছেন তার একটি তালিকা আসবে। সেখান থেকেই রিনিউয়াল অপশনটি বেছে নিতে হবে।

১০) এরপর আরও একটি ফর্ম আসবে সেখানে ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্য দিতে হবে। পাশাপাশি গাড়ির ও বেশ কিছু তথ্য দিতে হবে।

১১) এরপর সেখান থেকে ছবিও সই আপলোড করতে হবে।

১২) এরপর টেস্ট ড্রাইভের জন্ম স্লট বুক করতে হবে। সেই অনুযায়ী সময়ে গিয়ে টেস্ট ড্রাইভ দিতে হবে।

১৩) এরপর পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হলে একটি স্লিপ বেরিয়ে আসবে। যেখানে আবেদনের নম্বরও সাবমিট করা বিভিন্ন তথ্য লেখা থাকবে। একটি এসএমএস নোটিফিকেশনও পাবেন আবেদনকারী।

ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করতে আবেদনকারীকে অনলাইনেই দিতে হবে ২০০ টাকা। চলতি বছরে কেন্দ্রীয় সরকারের সড়ক পরিবহন মন্ত্রক একটি নোটিফিকেশন জারি করে বলেছে যে, এবার থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স ভেহিকেল রেজিস্ট্রেশন এমনকি লার্নার লাইসেন্স নেওয়ার জন্য ও আর আর টি ও অফিস যাওয়ার দরকার নেই। বাড়িতে বসে অনলাইনেই গ্রাহকেরা এই সমস্ত সুযোগ সুবিধা নিতে পারবেন। কেন্দ্রের এই বিশেষ মন্ত্রকের দাবি, আধার অথেন্টিকেশন বেসড কন্টাক্টলেস এই সার্ভিস এর ফলে লাইসেন্স তৈরি করার প্রক্রিয়া সহজ থেকে হতে চলেছে সহজতর। যাতে নাগরিকরা খুব সহজেই তাদের পরিষেবা পেতে পারেন।