কাশ্মীর ইস্যুকে নিয়ে এবার নিজের প্রতিবেশী দেশের কাছে কড়া ধমক খেলো পাকিস্তান..

যখন থেকে মোদি সরকার কাশ্মীরে 370 ধারা বিলোপ করেছে তখন থেকে পাকিস্তান ক্ষেপে উঠেছে।পাকিস্তান যথাসাধ্য চেষ্টা করছে কাশ্মীর থেকে 370 ধারা বিলোপ না করার জন্য। আর এই নিয়ে তারা রাষ্ট্রসংঘ থেকে শুরু করে বিভিন্ন দেশের কাছে অর্জি জানাচ্ছে তাদের সাথে সাত দেবার জন্য। তবে এবার কাশ্মীর ইস্যুতে প্রতিবেশী দেশ আফগানিস্তানকে পাশে পেল না পাকিস্তান। তবে শুধু তাই নয় ভারতকে কোণঠাসা করতে বিশ্বের যেসব দেশের কাছে পাকিস্তান হাজির হয়েছিল সেসব জায়গা থেকে তাদের খালি হাতে ফিরতে হয়েছে।

এমনকি পাকিস্তানের চির বন্ধু চীন ও জোরালো সাড়া দেয়নি ইমরান খানের এই আবেদন।এবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত আফগান রাষ্ট্রদূত রোয়া রহমানি পাকিস্তানকে তুলোধনা করেন।আফগানিস্তানের শান্তি প্রক্রিয়ার সঙ্গে কাশ্মীর ইস্যু জড়িয়ে ইসলামাবাদ যে বিবৃতি জারি করে, তার কড়া নিন্দা করেন রোয়া রহমানি।


এক ইংলিশ সংবাদ মাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমসে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আমেরিকায় নিযুক্ত পাক রাষ্ট্রদূত আসাদ মজিদ জানান কাশ্মীরে পরিস্থিতি সামলাতে আফগানের সীমান্ত থেকে বিপুল পরিমাণে সেনা সরিয়ে পাক-ভারত সীমান্তে মোতায়েন করা হতে পারে। কিন্তু এর জেরে কাশ্মীরের শান্তি প্রক্রিয়া বিঘ্নিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তাই তার এই মন্তব্যের সমালোচনা করে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত রোয়া রোমানি জানান, পাকিস্তান এই বিষয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীন, বেপরোয়া ও অবিবেচনা মত মন্তব্য করেছে।তবে এখানেই শেষ নয় তিনি আরো বলেন কাশ্মীর ইস্যুকে অহেতু জুড়ে দিয়ে আন্তর্জাতিক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করতে চলেছে ইসলামাবাদ। উল্লেখ্য, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নেতৃত্বে আফগানিস্তান এবং তালিবানের মধ্যে শান্তি প্রক্রিয়া চলছে।

এই সময় পাক সীমান্ত থেকে সেনা সরিয়ে নিলে আফগানিস্তানে শান্তি প্রক্রিয়ায় বিঘ্নিত হতে পারে হুঁশিয়ারি দেওয়ার চেষ্টা করে ইসলামাবাদ। তাই এর পরিপ্রেক্ষিতে আশরাফ ঘানির সরকার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে সীমান্তে তাদের বিপুল পরিমাণে সেনা মোতায়েন কোন অর্থ নেই। উল্টে আফগানিস্তান অভিযোগ করে পাক আশ্রিত জঙ্গিরাই হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা করছে সেখানে। তবে এখানেই শেষ নয় আফগানিস্তান আরো জানিয়ে দেয় কাশ্মীর ইস্যু হলো ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বিষয় আর এই বিষয়ের মধ্যে আফগানিস্তানের নাম জড়ানোর মানে হল দায়িত্বজ্ঞানহীন এর মত কাজ।